• শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫
ads
দৃষ্টিনন্দন মসজিদ উদ্বোধন করলেন বসুন্ধরা চেয়ারম্যান

ছবি : সংগৃহীত

মহানগর

দৃষ্টিনন্দন মসজিদ উদ্বোধন করলেন বসুন্ধরা চেয়ারম্যান

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ০৫ মে ২০১৯

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ৪২ নং ওয়ার্ড বেরাইদ। সম্প্রতি ডিএনসিসির আওতাভুক্ত হয়েছে ঢাকার প্রাচীন এ গ্রামটি। এ গ্রামটিকে স্থানীয়রা ‘মসজিদের গ্রাম’ বলে থাকে। গত শুক্রবার এ গ্রামে আরো একটি দৃষ্টিনন্দন মসজিদের উদ্বোধন করা হয়েছে।

বেরাইদ এলাকায় পূর্বপাড়া জামে মসজিদের উদ্বোধন করেন দেশের শীর্ষ শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। নবনির্মিত মসজিদ ভবনটি ১০ তলা ভিতবিশিষ্ট। বর্তমানে তিনতলা পর্যন্ত কাজ শেষ হয়েছে। মসজিদের নিচতলায় শপিং কমপ্লেক্স, দ্বিতীয় তলায় পুরুষ এবং তৃতীয় তলায় নারীদের জন্য নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা রয়েছে।

মসজিদটিতে জুমার নামাজ আদায় শেষে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেন, বেরাইদ এলাকার বৃহত্তম মসজিদ ‘পূর্বপাড়া জামে মসজিদের’ উদ্বোধন করতে পেরে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। মসজিদটি ১০ তলা ফাউন্ডেশনের। এখন তিনটি ফ্লোর নির্মিত হয়েছে। মুসল্লি যত বাড়বে মসজিদের ফ্লোরও বাড়াতে হবে। সামনে প্রতিটি ফ্লোর নির্মাণে বসুন্ধরা গ্রুপ সম্পৃক্ত থাকবে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের উদ্দেশে আহমেদ আকবর সোবহান বলেন, আপনাদের যে কোনো বিষয়ে সহযোগিতা আজীবন থাকবে। আমি চেষ্টা করব আপনাদের পাশে আজীবন থাকতে। আপনারা সবাই দীর্ঘায়ু হন।

বেরাইদের উন্নয়নে ঢাকা-১১ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম রহমতুল্লাহর অবদান উল্লেখ করে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেন, আমি রহমতুল্লাহ ভাইয়ের দীর্ঘায়ু কামনা করছি। উনি সবসময় বসুন্ধরা গ্রুপের পাশে ছিলেন।

এ সময় এ কে এম রহমতুল্লাহ বলেন, আমি বেরাইদবাসীর প্রতি সবসময় কৃতজ্ঞ। আরো কৃতজ্ঞ বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের প্রতি। উনি শুধু মসজিদ তৈরি করে দিয়েই থামবেন না, এলাকাবাসীর সুখে-দুঃখে সবসময় পাশে থাকবেন। আপনারা আকবর সোবহানের মৃত মা-বাবার জন্য দোয়া করবেন। আপনারা সবাই সবার মৃত মা-বাবার জন্য দোয়া করবেন। আমরা যেন সবার সেবা করে যেতে পারি, সেই বিষয়েও আপনারা দোয়া করবেন।

উদ্বোধন করা মসজিদ ভবনের দৈর্ঘ্য ১৫৫ ফুট, প্রস্থ ১৩৪ ফুট ৬ ইঞ্চি। প্রতি ফ্লোরের আয়তন ২০ হাজার ৮০০ বর্গফুট। তিন ফ্লোরের মোট আয়তন ৭৪ হাজার বর্গফুট। মসজিদের মিনার দুটি, প্রতি মিনারে ৮টি মাইক বসানো হয়েছে। গ্রাউন্ড ফ্লোর থেকে প্রতিটি ফ্লোরের উচ্চতা ১৩০ ফুট। মোট গম্বুজ পাঁচটি। কেন্দ্রস্থলে শোভা পাচ্ছে প্রধান গম্বুজ। এর বেড় ৩০ ফুট, উচ্চতা ২৭ ফুট। চার কর্নারে চারটি ছোট গম্বুজ রয়েছে। খতিব-ইমাম-মুয়াজ্জিনদের জন্য রয়েছে বিশ্রাম কক্ষ ও থাকার সুব্যবস্থা। জরুরি মুহূর্তে বিদ্যুতের বিকল্প হিসেবে গ্রাউন্ড ফ্লোরে ১০০ কেভি ক্ষমতাসম্পন্ন একটি জেনারেটর রয়েছে। সাবস্টেশন নির্মাণ করা হচ্ছে ৭৫০ কেভি ক্ষমতার। ভবিষ্যতে মসজিদ পরিচালনার ব্যয় মেটাতে গ্রাউন্ড ফ্লোরে নির্মিত হচ্ছে শপিং সেন্টার। সেখানে থাকবে ৪৫টি দোকান। নিরবচ্ছিন্ন পানি সরবরাহের জন্য তৈরি করা হয়েছে আন্ডারগ্রাউন্ড ওয়াটার রিজার্ভার। ছাদে ওভারহেড পানির ট্যাংকের ধারণক্ষমতা এক লাখ লিটার।

পূর্বপাড়া জামে মসজিদের নতুন ভবন উদ্বোধনের সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বসুন্ধরা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়াত সোবহান প্রমুখ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads