• সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

মহানগর

বুয়েট থেকে শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার, পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৭ অক্টোবর ২০১৯

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে-বাংলা হলের দ্বিতীয়তলা থেকে আবরার ফাহাদ (২১) নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরে বেশ কয়েকটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নিহত ফাহাদ বুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

হল প্রভোস্ট মো. জাফর ইকবাল খান বলেন, গতকাল রোববার দিবাগত রাত পৌনে তিনটার দিকে খবর পাই এক শিক্ষার্থী হলের সামনে পড়ে আছে। তাৎক্ষণিকভাবে বুয়েটের চিকিৎসক দিয়ে তাকে পরীক্ষা করা হয়। ওই চিকিৎসক জানান তিনি বেঁচে নেই। পরে পুলিশকে খবর দিই। পুলিশ এসে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। কেন সে বাইরে গিয়েছিল, কী হয়েছিল, তা এখনো জানা যায়নি।

ঢামেকে বুয়েটের ডা. মাসুক এলাহী সাংবাদিকদের বলেন, অন্য ছাত্রদের মাধ্যমে খবর পেয়ে শেরে বাংলা হলের প্রথমতলা ও দ্বিতীয়তলার মাঝামাঝি জায়গায় ফাহাদের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখি। অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে নিজে পরীক্ষা করে দেখি সে মারা গেছে। পরে বিষয়টি বুয়েট কর্তৃপক্ষ ও পুলিশকে জানানো হয়। তার শরীরে অনেকগুলো আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কে বা কারা তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে তা এখনো জানা যায়নি।

নিহতের সহপাঠীরা বলছে, গতকাল রাত আটটার দিকে শের-ই বাংলা হলের এক হাজার ১১ নম্বর কক্ষ থেকে কয়েকজন আবরারকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর রাত দুইটা পর্যন্ত তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাদের ধারণা, ২ হাজার ১১ নম্বর রুমে নিয়ে তাকে পিটানো হয়। পরে শের-ই বাংলা হলের একতলা ও দুই তলার মাঝখানের সিঁড়িতে আবরারকে পড়ে থাকতে দেখেন তারা।

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহরাব হোসেন ফাহাদের মৃত্যুর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads