• শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৬ সফর ১৪৩৯
BK

প্রতিক্রিয়া জানালেন মৌসুমীও

ধর্ষণ নিয়ে মিশা সওদাগর ও পূর্ণিমার আলাপচারিতার প্রতিক্রিয়া জানালেন চিত্রনায়িকা মৌসুমীও। স্বামী ওমর সানীর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক বিবৃতির মাধ্যমে মৌসুমী জানিয়েছেন— ব্যাপারটা নারী হিসেবে পীড়াদায়ক। এর আগে ওমর সানী একই প্রসঙ্গে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছিলেন। তবে চুপ ছিলেন মৌসুমী। অবশেষে শনিবার রাতে ফেসবুকের মাধ্যমে তার প্রতিক্রিয়া জানান।

ওমর সানীর ফেসবুকে মৌসুমী লেখেন, ‘প্রিয় দর্শক, আজ একজন অভিনেত্রী হয়ে নয়, একজন নারী হিসেবে আপনাদের কিছু কথা বলতে চাই। আপনারা জানেন কয়েক দিন আগে একটি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে ‘ধর্ষণ’ নিয়ে ঠাট্টা করা হয়েছিল। বিষয়টি হাসি তামাশা করার নয়। সঞ্চালিকা যেভাবে প্রশ্ন করলেন অতিথিকে আর তিনি যেভাবে উত্তর দিলেন তাতে মনে হলো আমরা যেন বোকার স্বর্গে বাস করছি। পরবর্তী সময়ে ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেল এবং বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রচার হতে শুরু করল। পুরো বিষয়টি একজন নারী হিসেবে মেনে নেওয়া ছিল পীড়াদায়ক। আমরা চলচ্চিত্রে নানা রকম অভিনয় করে দর্শককে বার্তা দিয়ে থাকি। যাতে ভালো-মন্দ দুটোই থাকে, শেষে জয় হয় ভালোর; পরাজয় ঘটে মন্দের। সেসব ইতিবাচক বার্তা তুলে না ধরে সমাজের নেতিবাচক দিকগুলো টক-শোতে এনে শুধু একজন বা দুজনকে নয় পুরো নারী জাতিকে অপমান করা হয়েছে। শুধু আমার নয়, অন্যান্য অনেকের ভক্ত, দর্শক বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি, সবাই যার যার অবস্থান হতে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। আমি তাদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে, তাদের সঙ্গে সুর মিলিয়ে এমন বক্তব্যের নিন্দা জানাচ্ছি। আমি প্রত্যাশা করব, এ অনুষ্ঠানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই ভবিষ্যতের কোনো একটি পর্বে এ ধরনের আচরণের জন্য ক্ষমা চেয়ে নেবেন।’

স্বামীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হওয়ায় শেষে তিনি লেখেন, ‘আপনাদেরই প্রিয় মৌসুমী।’

সম্প্রতি আরটিভিতে প্রচারিত ‘এবং পূর্ণিমা’ সেলিব্রেটি শো-তে ‘ধর্ষণ’ প্রসঙ্গ নিয়ে উপস্থাপিকা পূর্ণিমা মজা করে প্রশ্ন করেন অনুষ্ঠানের অতিথি অভিনেতা মিশা সওদাগরকে। তার প্রশ্ন ছিল— ধর্ষণ দৃশ্যে কার সঙ্গে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। উত্তরে মিশা মৌসুমী ও পূর্ণিমার নাম বলেন।