• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৫ সফর ১৪৩৯
BK

জোসেফ পুলিৎজার

ছবি : ইন্টারনেট

হাঙ্গেরীয় বংশোদ্ভূত খ্যাতনামা আমেরিকান সাংবাদিক জোসেফ পুলিৎজার। তিনি একাধারে একজন সফলতম লেখক ও সংবাদপত্র প্রকাশক। ১৮৪৭ সালের ১০ এপ্রিল হাঙ্গেরীর ম্যাকোতে তার জন্ম। ১৮৬৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হয়ে আসা পুলিৎজার ১৮৬৭ সালে সে দেশের নাগরিকত্ব লাভ করেন। আমেরিকার গৃহযুদ্ধে ফার্স্ট নিউইয়র্ক ক্যাভার্লিতে সংবাদদাতা হিসেবে কাজ করেন। একই বছর তিনি মিসৌরীর সেন্ট লুইসে অবস্থিত জার্মানভিত্তিক দৈনিক সংবাদপত্র ওয়েস্টলিসে পোস্টের প্রতিবেদক হিসেবে নিযুক্ত হন। ১৮৭১ সালে তিনি সম্পাদকীয় পরিচালনার দায়িত্ব পান এবং দৈনিকটির একাংশের মালিকানা লাভ করেন। সাংবাদিকতার পাশাপাশি সেন্ট লুইসের রাজনীতিতেও জড়িয়ে পড়েন পুলিৎজার। আইনে স্নাতক ডিগ্রি অর্জনকারী পুলিৎজার, ১৮৭২ সালে লিবারেল রিপাবলিকান পার্টির পক্ষ থেকে হোরেস গ্রিলে থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নেন। তিনি নিউইয়র্ক সান পত্রিকার সংবাদদাতা ছিলেন। ১৮৮৩ সালে নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ড নামে নতুন একটি দৈনিক সংবাদপত্র প্রকাশ করেন তিনি। তার পরিচালনায় এটি সে সময় বৃহত্তম সংবাদপত্র হিসেবে আবির্ভূত হয়।

৩১ বছর বয়সে মিসিসিপির সম্পদশালী পরিবারের মেয়ে ক্যাথরিন কেট ডেভিসকে বিয়ে করেন। ১৮৮৩ সালে সম্পদশালী ব্যক্তিরূপে পুলিৎজার ৩ লখ ৪৬ হজার ইউএস ডলারের বিনিময়ে জে গোল্ডের কাছ থেকে নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ড ক্রয় করেন। ওই সময় পত্রিকাটি প্রতি বছর গড়ে ৪০ হাজার ডলার লোকসান দিত। পত্রিকার প্রচার বাড়াতে পুলিৎজার কৌতূহলোদ্দীপক গল্প, রটনা এবং আবেগধর্মী বিষয়াবলি অন্তর্ভুক্ত করেন। তার নেতৃত্বে প্রচার সংখ্যা ১৫ হাজার থেকে একলাফে ৬ লাখে উন্নীত হয়।

তার অর্জিত বিপুল অঙ্কের অর্থ কলাম্বিয়া স্কুল অব জার্নালিজম যা বর্তমানে কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রদান করেন। ১৯১১ সালে ২৯ অক্টোবর মৃত্যুর পর তার ইচ্ছানুসারে ও সম্মানার্থে পুলিৎজার পুরস্কার প্রবর্তন করা হয়। সাংবাদিকতা ও আলোকচিত্রকলার পাশাপাশি নাটক, কবিতা, ইতিহাস, পত্র, সঙ্গীতের মতো ২১টি বিভাগে এ পুরস্কার দেওয়া হয়ে থাকে।