• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
BK

এটা ভালো লাগার বিষয় : সৌম্য

ওয়ানডে র্যাঙ্কিংয়ে সর্বোচ্চ ষষ্ঠ স্থানে উঠেছিল বাংলাদেশ। বর্তমানে অবস্থান সাতে। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে এই গ্রাফটা দীর্ঘ ১৮ বছরে ছিল হতাশারই। সব সময় শেষের দিকেই থাকতে হয়েছে। অবশেষে কিছুটা অগ্রগতি, যা বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো। টেস্ট র্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান এখন অষ্টম। পেছনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও জিম্বাবুয়ে। দারুণ এই সাফল্যে খুশির আবহ ক্রিকেটাঙ্গনে। গতকাল মিরপুরে যেমনটি বললেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার সৌম্য সরকার। তার মতে, এমন খবর অবশ্যই খুশি ও ভালোলাগার। তবে এই অবস্থান ধরে রেখে আরো কীভাবে উপরে যাওয়া যায়, সেই চিন্তা করতে হবে।

টেস্টে র্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ আগানো প্রসঙ্গে সৌম্য বলেন, ‘ভালো লাগার বিষয়। এতদিন আমরা শেষের দিকে থাকতাম। এখন তাও দুটি দলের আগে এসেছি। ভালো লাগছে। কিন্তু তার চেয়ে বড় কথা হচ্ছে, এটা ধরে রাখতে পারব কীভাবে, কিংবা কীভাবে এর থেকে উপরে যেতে পারবে। এটাই সবচেয়ে বড় কথা।’

র্যাঙ্কিংয়ে অগ্রগতি ক্রিকেটারদের মধ্যে দায়িত্ববোধ বাড়াবে কি না। এমন প্রশ্নে জাতীয় দলের বা হাতি ওপেনার বলেন, ‘অবশ্যই। দায়িত্ব না বাড়লে কিন্তু কেউ ভালোও খেলত না, দলেরও রেজাল্ট আসত না। খেলোয়াড়রা ভালো খেলছে বলেই র্যাঙ্কিং আগাচ্ছে। খেলোয়াড়রা অনেক কষ্ট করছে, সবাই সবার জায়গা থেকে চেষ্টা করছে কীভাবে দলকে এগিয়ে নেওয়া যায়।’

বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ পড়া প্রসঙ্গে সৌম্য বলেন, ‘আমি ভালো খেললে তারা নেবে, ওটা আমার হাতে নেই। তাই ওটা নিয়ে চিন্তা করে কোনো লাভ নেই। আমার চেষ্টা থাকে নিজেকে উজাড় করে দেওয়া। বাদ-বাকি অন্যদের বিষয়।’ ইনজুরিতে না পড়লেও ফিটনেস নিয়ে সমস্যা আছে সৌম্যর, যা নিয়ে কাজ করছেন তিনি। তার মতে, ‘কাজ হচ্ছে। আমার যারা স্যার আছেন, আগে বিকেএসপির স্যার, বিসিবিতে ফাহিম স্যার, আমি সবার সঙ্গে কথা বলে কাজ করছি। যেখানে ঘাটতি আছে স্যারদের নির্দেশনায় কাজ করছি। তাছাড়া স্কিল নিয়ে একটু বেশি মনোযোগ দিচ্ছি।’

ফিটনেস নিয়ে বেশি চিন্তা সৌম্যর, ‘এখন একটু ফিটনেস নিয়ে বেশি চিন্তা। ক্যাম্প শুরু হলে একটা লক্ষ্য নির্ধারণের পরিকল্পনা করব। এখন কিছুদিন বিশ্রাম আছে। তারপর ফিটনেস ক্যাম্প। তো চিন্তা করছি, এখান থেকে নিজেকে আরো কতটুকু ফিট করা যায়। বাকি ছয় মাস যেন ওই ফিটনেসের উপর দিয়ে ভালোভাবে চলে যেতে পারি।’

জুনের প্রথম সপ্তাহে ভারতের মাটিতে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এই ফরম্যাটে আফগানরা বেশ কঠিন প্রতিপক্ষ মানছেন সৌম্য, ‘টি-টোয়েন্টি হলে আফগানিস্তান কঠিন প্রতিপক্ষ হবে। কারণ তাদের বোলিং বিভাগ অনেক ভালো। তবে আমাদের দলও এখন অনেক ভালো। তারাও জানে কীভাবে তাদের সামলাতে হবে, কীভাবে খেলতে হবে। আসলে সবচেয়ে বড় কথা এখন আমরা জানি কীভাবে আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে হয়। সবাই আত্মবিশ্বাসী। যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারি তাহলে অবশ্যই তাদের ভালোভাবে হারানো সম্ভব।’ ওয়ানডে ও টেস্টে নিজের অবস্থান প্রসঙ্গে সৌম্য জানান, ‘ভালো খেললে অবশ্যই আবার দলে আসব। চেষ্টা করছি নিজের সেরাটা দেওয়ার জন্য। যাতে নিজের জায়গা ধরতে পারি।’