• শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ১০ মহররম ১৪৪০
BK

সৌদির সঙ্গে বাংলাদেশ

ইন্টারনেট

্র

বাংলাদেশ কখনো বিশ্বকাপ ফুটবলের চূড়ান্ত পর্বে খেলেনি। আর সৌদি আরব খেলেছে পাঁচবার। এই সৌদি আরবের সঙ্গে একটি ফুটবল সংস্থা, ফেডারেশন, ইউনিয়ন কিংবা জোটে থাকাটা বিরাট গর্বের ব্যাপার। শুধু সৌদি আরবই নয়, বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলা কুয়েত ও সংযুক্ত আরব আমিরাতও রয়েছে ওই ফুটবল সংগঠনের সঙ্গে। পশ্চিম এশিয়ার আরো দুই ফুটবল শক্তি রয়েছে এই জোটে। এই দুটি দেশ হলো বাহরাইন ও ইয়েমেন। পশ্চিম ও দক্ষিণ এশিয়ার ১০টি দেশ নিয়ে গঠিত হচ্ছে নতুন একটি ফুটবল ফেডারেশন। সাউথ ওয়েস্ট এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সোয়াফ) নামে গঠিত এই ফেডারেশনে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ।

একটি আরবি সংবাদমাধ্যমের তথ্যানুযায়ী, সৌদি আরবের নেতৃত্বে নতুন এই ফুটবল ফেডারেশন গঠন করা হচ্ছে। যেখানে কুয়েত, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ইয়েমেন, পাকিস্তান, ভারত, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ সদস্য হিসেবে থাকছে। প্রতিটি দেশের ফুটবল ফেডারেশনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত থেকে নতুন এই সংগঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে মধ্যপাচ্যের ও দক্ষিণ এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশকে এই ফেডারেশনের বাইরে রাখা হচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে কাতার, সিরিয়া, লেবানন, ফিলিস্তিন, জর্দান, ভুটান ও নেপাল।

এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) ছাড়াও এশিয়ার দুই অঞ্চলে পৃথক ফুটবল সংস্থা রয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ায় ফুটবল নিয়ে কাজ করছে সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ) ও পশ্চিম এশিয়ায় রয়েছে ওয়েস্ট এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (ওয়াফ)।

পৃথক দুটি ফুটবল সংগঠন থাকার পরও নতুন ফেডারেশন গঠনের কারণ এখনো স্পষ্ট নয়। তবে গুঞ্জন শোনা যায়, রাজনৈতিক কারণে সৌদি জোট নতুন এই সংস্থা গঠন করতে যাচ্ছে। অনেকের মতে, ওয়েস্ট  এশিয়ান ফুটবল সংস্থা ওয়াফের সদর দফতর জর্দান থেকে সৌদিতে স্থানান্তরের বিরোধিতা করেন বর্তমানে ওয়াফ ও জর্দান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট আলি বিন হুসাইন। এর জবাবে সৌদি আরব নতুন ফেডারেশন সোয়াফ গঠন করতে যাচ্ছে। এটির সদর দফতর হবে জেদ্দা।

মধ্যপ্রাচ্যে সৌদির রাজনৈতিক মিত্র দেশগুলো ছাড়াও দক্ষিণ এশিয়ার মুসলিমপ্রধান দেশগুলো নতুন সদস্য হিসেবে থাকছে। তার সঙ্গে শ্রীলঙ্কা ও ভারতও যুক্ত হচ্ছে।

সোয়াফ প্রাথমিক ঘোষণায় জানায় যে, তারা প্রতিবছর একটি টুর্নামেন্টের আয়োজন করবে। তবে এই সংগঠন শেষ পর্যন্ত কতটা আলোর মুখ দেখবে বা সাফল্য পাবে তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। পুরোদমে নতুন এই ফেডারেশনের কাজ শুরু করতে হলে এএফসির অনুমোদন লাভ করতে হবে। এর জন্য তাদের বেশকিছু দিন অপেক্ষাও করতে হবে। এ ছাড়া ক্রীড়া জগতে সংগঠনগুলো সাধারণত ভৌগোলিক দিক থেকে গঠন করা হয়। সেখানে সোয়াফ গঠন করা হচ্ছে রাজনৈতিক ভিত্তিতে। ফলে সেটির কার্যকারিতা, গুণগত মান ও স্থায়িত্ব নিয়েও প্রশ্ন থেকে যায়।