• মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৩ আশ্বিন ১৪২৫, ৭ মহররম ১৪৪০
BK

রাইস কয়েন প্রতারণা, গ্রেফতার ৬

রাইস কয়েন প্রতারণা, গ্রেফতার ৬
সংগৃহীত ছবি

চালকে আকর্ষণ করে এমন একটি অপ্রচলিত ধাতব মুদ্রা ‘রাইস কয়েন’। এই কয়েনটিকে ‘মহামূল্যবান’ হিসেবে তুলে ধরে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র। সম্প্রতি এ ধরনের একটি চক্রের মূল হোতাসহ ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

গতকাল সোমবার সিআইডি জানায়, রাজধানীর উত্তরা থেকে প্রতারক চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করা হয়। তারা হলো- মূল হোতা সৈয়দ মোস্তাকিন আলী (৩৫), শাহে আলম পাঠান (৫০), মো. জাহিদ হাসান (৫৩), শওকত আলী লিওন (৫৭), রাজু মিয়া (৫১) ও ফজর আলী (৪৫)। চক্রটি প্রথমে একজনকে টার্গেট করে কৌশলে তার সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলে। পরে ওই ব্যক্তির কাছে রাইস কয়েনের গল্প বলা শুরু করে। চক্রের সদস্যরা এই কয়েনকে মহামূল্যবান হিসেবে তুলে ধরে বলে, এর মধ্যে ম্যাগনেটিক পাওয়ার ও ইউরেনিয়াম রয়েছে। এ ধরনের কয়েন নাসার বিজ্ঞানীরা মহাকাশ গবেষণার কাজে ব্যবহার করে থাকেন এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে এর বহু মূল্য রয়েছে বলে উল্লেখ করে প্রতারকরা।

শুধু তাই নয়, বিশ্বাস অর্জনের জন্য কয়েনের চারপাশে কিছু চাল রেখে ম্যাজিক ট্রিকসও দেখায় চক্রটি। দেখা যায়, চালগুলো চুম্বকের মতো কয়েনের সঙ্গে আটকে থাকে। এটা দেখে সাধারণ লোকজন কয়েনটির প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করে। তারা কয়েনটিকে দামি মনে করে বিপুল অর্থ দিয়ে কিনে নেয়। এভাবে প্রতারক চক্রটি অনেকের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করে।

কিছুদিন আগে এ ধরনের প্রতারণার শিকার এক ব্যক্তি মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর থানায় একটি মামলা করেন। সিআইডি জানায়, মামলাটির তদন্তকালে তারা জানতে পেরেছে, প্রতারক চক্রটি দুই কোটি টাকা হাতানোর লক্ষ্য নিয়ে প্রস্তুত হচ্ছে। এরপর সিআইডি ফাঁদ পাতে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, সোর্সসহ বিভিন্ন মাধ্যম ব্যবহার করে তাদের মিটিং পয়েন্ট শনাক্ত করাসহ সিআইডি অর্গানাইজড ক্রাইমের একটি দল প্রতারক চক্রের ছয় সদস্যকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চক্রের সদস্যরা সাধারণ মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার কথা স্বীকার করেছে।