• সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ১৩ মহররম ১৪৪০
BK

রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি

সদ্য সমাপ্ত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি।  গত অর্থবছরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রফতানি আয় ২ দশমিক ২২ শতাংশ কম হয়েছে। তবে এর আগের অর্থবছরের চেয়ে রফতানি আয় বেড়েছে ৫ দশমিক ৮১ শতাংশ।

বাংলাদেশ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

২০১৭-১৮ অর্থবছরে (জুলাই-জুন) রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ৩ হাজার ৭৫০ কোটি মার্কিন ডলার। কিন্তু এ সময়ে রফতানি হয়েছে ৩ হাজার ৬৬৬ কোটি ৮১ লাখ মার্কিন ডলারের পণ্য।  অর্থাৎ লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় রফতানি আয় ২ দশমিক ২২ শতাংশ কম হয়েছে।

তবে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের তুলনায় রফতানি আয় ৫ দশমিক ৮১ শতাংশ বেড়েছে।  ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রফতানি আয় হয়েছিল ৩ হাজার ৪৬৫ কোটি ৫৯ লাখ মার্কিন ডলার।

এছাড়া চলতি বছরের জুনে রফতানি আয় হয়েছে ২৯৩ কোটি ৯৩ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার; যা এ মাসের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৮ দশমিক ৮৭ শতাংশ কম।  একই সঙ্গে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জুন মাসের তুলনায় ৩ দশমিক ০৮ শতাংশ কম।

২০১৭-১৮ অর্থবছরে তৈরি পোশাক খাতে রফতানি আয় হয়েছে ৩ হাজার ৬১৪ কোটি মার্কিন ডলার ডলার, যা গত অর্থবছরের চেয়ে ৮ দশমিক ৭৬ শতাংশ বেশি। এর মধ্যে নিটওয়্যার খাতের পণ্য রফতানিতে এক হাজার ৫১৮ কোটি ডলার এবং ওভেন পোশাক রফতানিতে এক হাজার ৫৪২ কোটি ৬২ লাখ ডলার আয় হয়েছে।

জুলাই-জুন সময়ে কৃষি পণ্য রফতানিতে আয় বেড়েছে ২১ দশমিক ৭৯ শতাংশ।  এ ছাড়া পাট খাতে ৬ দশমিক ৫৬ শতাংশ এবং হোম টেক্সটাইলে ৯ দশমিক ৯৫ শতাংশ রফতানি আয় বেড়েছে। 

তবে হিমায়িত খাদ্য ও মাছ রফতানিতে ৩ দশমিক ৪২ শতাংশ, প্লাস্টিক পণ্যে ১৫ দশমিক ৭৯ শতাংশ এবং চামড়া ও চামড়াজাত পণ্যে ১২ দশমিক ০৩ শতাংশ আয় কমেছে।