• মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫, ২৩ সফর ১৪৩৯
BK

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ
ছবি : ইন্টারনেট

যুক্তরাজ্যের ব্রেক্সিটমন্ত্রীর পর এবার পদত্যাগ করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন। প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র প্রস্তাবিত ব্রেক্সিট পরিকল্পনার প্রতিবাদ হিসেবেই তিনি সোমবার পদত্যাগ করেছেন বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

গত চব্বিশ ঘণ্টায় এ নিয়ে তিনজন ব্রিটিশ মন্ত্রী পদত্যাগ করলেন। এ ঘটনায় ব্রেক্সিট সমর্থক এমপিদের মধ্যে উল্লাস দেখা যায়। কনজারভেটিভ পার্টির সাবেক নেতা লেইন ডানকানের মতে, বরিসের এই পদত্যাগ সরকারের জন্য বিশাল ধাক্কা এবং ব্রেক্সিট পরিকল্পনাকে প্রতিহত করতে পারে।

জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বরিস জনসনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেন। দ্রুত তার স্থলে আরেকজনের নাম ঘোষণা করা হবে। প্রধানমন্ত্রী এ সময় জনসনের কাজের প্রশংসা করেন।

গত শুক্রবার বহুবিভক্ত মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে মন্ত্রিসভায় ব্রেক্সিট পরিকল্পনা উত্থাপন করেন মে। এ সময় বরিস জনসন ছাড়াও ব্রেক্সিটমন্ত্রী ও অন্যান্য কয়েকজন ওই পরিকল্পনার বিরোধিতা করেন। এ ছাড়া দেশটির সংসদের এই পরিকল্পনার তীব্র সমালোচনা হচ্ছে। এমন অবস্থায় সংসদের কমপক্ষে ৪৮ সাংসদ হাউস অব লর্ডসের ব্যাকবেঞ্চে ১৯২২ কমিটির কাছে অনাস্থা ভোটের আবেদন জানিয়ে চিঠি দিলে প্রধানমন্ত্রীকে আস্থা ভোটের মুখোমুখি হতে হবে।

এর আগে পদত্যাগ করেন ব্রেক্সিটমন্ত্রী দেহিদ ডেভিস এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন বিষয়ক মন্ত্রী স্টিভ বাকের।