• বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ৮ মহররম ১৪৪০
BK

ইরানের মোকাবেলায় ‘আরব ন্যাটো’ পুনরুজ্জীবিত করার পরিকল্পনা

ইরানের মোকাবেলায় ‘আরব ন্যাটো’ পুনরুজ্জীবিত করার পরিকল্পনা
ছবি : ইন্টারনেট

উপসাগরীয় ছয় দেশকে নিয়ে গোপনে নতুন নিরাপত্তা ও রাজনৈতিক জোট গঠনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মধ্যপ্রাচ্যে ইরানকে মোকাবেলা করতে মিসর এবং জর্ডানকে নিয়ে সুন্নি মুসলিম দেশগুলোর নতুন জোট গঠনের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে আলজাজিরা।

সুন্নি মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা, সেনা প্রশিক্ষণ, সন্ত্রাসবাদবিরোধী অবস্থান এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে আরো গভীর যোগাযোগ চাইছে হোয়াইট হাউস। এ ছাড়াও দেশগুলোর মধ্যে নতুন করে কূটনৈতিক এবং আঞ্চলিক যোগাযোগ শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কাজ করছে ওয়াশিংটন। হোয়াইট হাউস এবং মধ্যপ্রাচ্য একযোগে এই পরিকল্পনাকে ‘আরব ন্যাটো’ পুনরুজ্জীবিতকরণ বলছে। বিশ্লেষকদের মতে, যুক্তরাষ্ট্র সুন্নি মুসলিম দেশগুলোকে নিয়ে শিয়া মুসলিম দেশ ইরানের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে চাইছে।

জানা যায়, আগামী ১২-১৩ অক্টোবর ওয়াশিংটনে মিডল ইস্ট স্ট্র্যাটেজিক অ্যালায়েন্স (এমইএসএ) শিরোনামে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ওই বৈঠকে উপসাগরীয় ছয় দেশের প্রতিনিধিরা ছাড়াও ইউরোপীয় দেশগুলোর প্রতিনিধিরাও উপস্থিত থাকবেন বলে জানা যায়। আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই নতুন এই জোট গঠনের প্রাথমিক প্রক্রিয়া শেষ করা হবে।

গত বছর সৌদি আরবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সফর করলে সৌদি কর্তৃপক্ষ এমন জোট গঠনের পরিকল্পনা তুলে ধরে। হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের মুখপাত্র এ বিষয়ে জানান, ‘এমইএসএ ইরানের আগ্রাসন, সন্ত্রাসবাদ, উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে এবং মধ্যপ্রাচ্যের স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে কাজ করবে।’ আগামী অক্টোবরের মাঝামাঝি জোট গঠন চূড়ান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

অনেকদিন ধরেই ওয়াশিংটন, রিয়াদ এবং আবুধাবি মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিতিশীলতার জন্য ইরানকে দায়ী করে আসছে। ইরানের একজন শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা জানান, মধ্যপ্রাচ্যের স্থিতিশীলতা প্রশ্নে আমেরিকানরা এবং তাদের আঞ্চলিক মিত্ররা এই অঞ্চলে উত্তেজনার সৃষ্টি করছে।