• বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ৮ মহররম ১৪৪০
BK

মা-বাবার পাশে চিরনিদ্রায় এমপি সুজা

মা-বাবার পাশে চিরনিদ্রায় এমপি সুজা
সংরক্ষিত ছবি

খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম মোস্তফা রশিদী সুজাকে গতকাল রোববার বাদ আছর মহানগরীর টুটপাড়া কবরস্থানে তার মা-বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয়েছে। এর আগে সকালে ঢাকায় সংসদ ভবনের উত্তর প্লাজায় সুজার কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি তার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধার নিদর্শন হিসেবে সেখানে কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। প্রধানমন্ত্রী এরপর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দলীয় নেতা ও সংসদ সদস্যদের নিয়ে দলের পক্ষে কফিনে আরেকটি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। সেখানে রাষ্ট্রপতির পক্ষেও সুজার কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এর আগে উত্তর প্লাজায় তার জানাজা হয়। মন্ত্রীরা, সংসদ সদস্যরা, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা এবং জাতীয় সংসদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ বিপুলসংখ্যক মানুষ এতে শরিক হন। পরে জাতীয় সংসদ মসজিদের পেশ ইমাম মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করেন।

জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ সুজা (৬৮) গত বৃহস্পতিবার রাতে সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে গেছেন। খুলনায় দাফনের আগে বাদ আছর শহীদ হাদিস পার্কে তার জানাজা হয়। এতে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী নারায়ণচন্দ্র চন্দসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনের নেতাকর্মী এবং হাজার হাজার সাধারণ মানুষ অংশ নেয়। এর আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, ছাত্র ও পেশাজীবী সংগঠন মরহুমের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করে। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে তার মরদেহ নগরীর বাসভবন থেকে খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে নেওয়া হয়। সেখানে জেলা আওয়ামী লীগসহ দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। এর আগে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে সুজার মরদেহ ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে খুলনার টুটপাড়ার বাসভবনে নেওয়া হয়। সেখানে আত্মীয়স্বজন ও এলাকাবাসী তার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। বাদ জোহর টুটপাড়ায় সুজার বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত মকবুল হোসেন জামে মসজিদেও তার জানাজা হয়।