• শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ১০ মহররম ১৪৪০
BK

মিসাইল তৈরি বন্ধ করেনি উ. কোরিয়া

মিসাইল তৈরি বন্ধ করেনি উ. কোরিয়া
ছবি : ইন্টারনেট

গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, ট্রাম্প প্রশাসনের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নের পরও নতুন ব্যালিস্টিক মিসাইল তৈরি করছে উত্তর কোরিয়া। বিবিসি জানায়, স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া গোপন ছবির মাধ্যমে দেখা যায় ব্যালিস্টিক মিসাইল তৈরি করা একটি কারখানায় এখনো মিসাইল তৈরীর কার্যক্রম চলছে। ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকাকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন মার্কিন কর্মকর্তা এই তথ্য জানান।

জুন মাসে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-আন'এর বৈঠকের পর দু'জনই পারমাণবিক অস্ত্র তৈরীর কার্যক্রম কমিয়ে আনার বিষয়ে একমত হন। ওই বৈঠকের পর ট্রাম্প বলেন, উত্তর কোরিয়া এখন আর 'পারমাণবিক হুমকি' নয়। তবে কিমের পক্ষ থেকে কোনো নিশ্চিত প্রতিশ্রুতি আদায় না করায় যুক্তরাষ্ট্রে সমালোচনার শিকার হন ট্রাম্প। সোমবার ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকা মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানায়, রাজধানী পিয়ংইয়ং'এর কাছে সানুমডং কেন্দ্রে একটি বা দু'টি আন্ত:মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক মিসাইল তৈরী করছে উত্তর কোরিয়া। পত্রিকায় আরো বলা হয়, ওই কেন্দ্র থেকেই যুক্তরাষ্ট্র পর্যন্ত পৌঁছানোর সক্ষমতা সম্পন্ন প্রথম মিসাইলটি তৈরী করে দেশটি।

রয়টার্সের তথ্য অনুযায়ী, স্যাটেলাইটে পাওয়া ছবি থেকে ওই কেন্দ্রে যানবাহন ঢুকতে ও বের হতে দেখা গেলেও মিসাইল তৈরীর কার্যক্রমের পরিসর সম্পর্কে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য জানা যাচ্ছে না। জুনের শেষেও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাদের সহায়তায় দেশটির গণমাধ্যম প্রতিবেদন করে যে উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক শক্তিবৃদ্ধির কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এপ্রিলে পারমাণবিক কার্যক্রম ও মিসাইল টেস্ট বন্ধ করার ঘোষণা দেয় উত্তর কোরিয়া।

উত্তর কোরিয়ার প্রধান প্রধান পারমাণবিক পরীক্ষা :

গতবছর বেশ কয়েকটি মিসাইল পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া।

১২ই ফেব্রুয়ারি ২০১৭ : পশ্চিম উপকূলের বানঘিওন বিমান ঘাঁটি থেকে মধ্যম পাল্লার একটি ব্যালিস্টিক মিসাইল ছোঁড়া হয়, যেটি পূর্বদিকে জাপান সমুদ্রের দিকে ৫০০ কিলোমিটারের মত দূরত্ব অতিক্রম করে।

৪ঠা জুলাই ২০১৭ : প্রথমবারের মত সফল আন্ত:মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক মিসাইল পরীক্ষা চালানোর ঘোষণা দেয় পিয়ংইয়ং। কর্মকর্তারা দাবী করেন এটি ২,৮০২ কিলোমিটার উচ্চতা পর্যন্ত ওঠে এবং ৩৯ মিনিট ধরে উড্ডীয়মান থাকে।

২৯শে আগস্ট ২০১৭ : উত্তর কোরিয়ার দাবী অনুযায়ী, জাপানের ওপর দিয়ে প্রথম পারমাণবিক শক্তিসম্পন্ন ব্যালিস্টিক মিসাইল ক্ষেপণ করা হয়। পিয়ংইয়ং'এর কাছ থেকে ক্ষেপণ করা এই মিসাইলটি ৫৫০ কিলোমিটার উচ্চতায় ওঠে।

১৫ই সেপ্টেম্বর ২০১৭ : দ্বিতীয়বারের মত জাপানের ওপর দিয়ে ব্যালিস্টিক মিসাইল ক্ষেপণ করা হয় যা হোক্কাইডো সাগরে গিয়ে পড়ে। এই মিসাইলটি ৭৭০ কিলোমিটার উচ্চতায় ওঠে এবং ৩,৭০০ কিলোমিটার দূলত্ব অতিক্রম করে।

২৯শে নভেম্বর ২০১৭ : উত্তর কোরিয়ার দাবী অনুযায়ী তারা নতুন ধরণের একটি আন্ত:মহাদেশীয় ব্যালিস্টিক মিসাইলের সফল পরীক্ষা চালায় যা যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখন্ডে আঘাত করতে সক্ষম। জাপানের কাছে সাগরে হুয়াসং-১৫ মিসাইলটি পতিত হলেও আগের যে কোনো উত্তর কোরিয়ান মিসাইলের চেয়ে বেশী উঁচুতে ওঠে।