• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
BK

হিলিতে বাড়তি ৯ কোটি টাকার রাজস্ব আয়

হিলিতে বাড়তি ৯ কোটি টাকার রাজস্ব আয়
সংরক্ষিত ছবি

হিলি স্থলবন্দরে গত অর্থবছরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৯ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আয় হয়েছে। ওই অর্থবছরে ১৯০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছিল জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। তবে আদায় হয়েছে ১৯৯ কোটি টাকা।

এদিকে অধিক শুল্কযুক্ত পণ্যের আমদানি বাড়লে এবং বন্দরটির রাস্তাঘাট ও অবকাঠামো উন্নয়ন করা হলে রাজস্ব আয় আরো বেশি হবে বলে আশা করছেন বন্দরের ব্যবসায়ীরা।

তারা বলেন, ভারতের সব অঞ্চলের সঙ্গে সড়ক ও রেলযোগাযোগ ভালো থাকায় চাহিদার অধিকাংশ পণ্যই আমদানি হয়ে থাকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে। এ বন্দর দিয়ে এখন পেঁয়াজ, রসুন, আদা, মরিচ, খৈল, ভুষি, ভুট্টা, চাল, পাথর আমদানি হচ্ছে- যার অধিকাংশ পণ্যই শুল্কমুক্ত। ফলে আমদানি খাত থেকে রাজস্ব আয় অনেকাংশে কমে গেছে। তবে অধিক শুল্কযুক্ত পণ্য কাঁচা ফল, মাছ, পেপার সামগ্রী, মোটর পার্টস, সেনিটারি-ইমিটেশন-স্টিল-কসমেটিকস সামগ্রীসহ অন্যান্য পণ্য আমদানিতে কাস্টমস সহযোগিতা করলে এই বন্দরে রাজস্ব আয় আরো বাড়বে। হিলি স্থলবন্দর আমদানিকারক গ্রুপ সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন বলেন, কাস্টমসের সদিচ্ছার অভাবে কাঁচা ফল, মাছ, পেপার সামগ্রীসহ অধিক শুল্কযুক্ত পণ্য আমদানি হচ্ছে না এই বন্দর দিয়ে। ফলে বন্দর ছাড়ছেন আমদানিকারকরা। গত অর্থবছরে (২০১৭-১৮) ১৯০ কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ১৯৯ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে হিলি কাস্টমস কর্তৃপক্ষ, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৯ কোটি টাকা বেশি।