• বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ৮ মহররম ১৪৪০
BK
কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত

দৌলতদিয়ায় পারের অপেক্ষায় শত শত যান

দৌলতদিয়ায় পারের অপেক্ষায় শত শত যান
ছবি - বাংলাদেশের খবর

নাব্য সঙ্কটে ঈদুল আজহার ষষ্ঠ দিনে গতকাল মঙ্গলবারও কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হয়েছে। এতে কয়েক শ যানবাহনে থাকা দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রী ও চালকরা দুর্ভোগে পড়েন। এদিকে এই নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়াই যানবাহনের বাড়তি চাপ ছিল পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায়। গতকাল দুপরে সেখানে পাঁচ শতাধিক যানবাহন নদী পারের অপেক্ষায় থাকতে দেখা যায়।

কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটের ঘাট কর্তৃপক্ষ জানায়, নদীতে ড্রেজিং চলমান থাকায় গত দুই সপ্তাহ ধরে এ নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। অন্য চ্যানেল দিয়ে স্বল্প পরিসরে কয়েকটি ফেরি চলাচল করলেও সেখানে প্রবল স্রোতের মুখে পড়ছে ফেরিগুলো। বতর্মানে ২১টি ফেরির মধ্যে চলছে ৯টি ফেরি। দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল ব্যাঘাত ঘটায় ঘাটে আটকা পড়েছে পাঁচ শতাধিক যানবাহন। এতে দুর্ভোগে পড়েন এ নৌরুটে চলাচলকারী যাত্রী ও চালকরা। ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় যাত্রীদের চাপ বেড়েছে লঞ্চ ও স্পিডবোটে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অনেকেই পাড়ি দিচ্ছেন উত্তাল পদ্মা নদী।

দৌলতদিয়া প্রান্তের ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে গতকাল দুপুরে ঢাকামুখী যাত্রীবাহী পরিবহন, ট্রাক ও ব্যক্তিগত ছোট গাড়ি সিরিয়ালে থাকতে দেখা যায়। এ ছাড়া ঢাকামুখী লোকাল যাত্রীদের ভিড় দেখা যায় লঞ্চ ও ফেরিঘাটে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. খোরশেদ আলম জানান, ঈদ-পরবর্তী যানবাহনের বাড়তি চাপ, নদীতে প্রচণ্ড স্রোত এবং শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া ঘাটে অতিরিক্ত গাড়ি রয়েছে। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে যানবাহন পারাপারে বর্তমানে ১৮টি ফেরি চলাচল করছে জানিয়ে তিনি বলেন, দ্রুত এ সিরিয়াল কমে যাবে।