• শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ১১ মহররম ১৪৪০
BK

স্বপ্ন মনে রাখার উপায়

স্বপ্ন মনে রাখার উপায়

স্বপ্নকে মানবমস্তিষ্কের এক স্বাভাবিক প্রক্রিয়াই ভাবা হয়। স্বপ্ন মানুষের ঘুমন্ত জীবনের একটি অপরিহার্য অংশ। নিদ্রিত অবস্থায় ইন্দ্রিয়গুলো স্তিমিত হয়, সম্পূর্ণ নিষ্ক্রিয় হয় না। তাই ঘুমের মধ্যে নানারূপ কল্পনাশ্রয়ী চিন্তা ও দৃশ্য উদয় হয়। এসব দৃশ্য দেখাকে এক রকমের স্বপ্ন বলা হয়। স্বপ্ন কখনো কখনো এমন হয় যে তা বাস্তবই মনে হয়। ঘুম ভাঙার পরেও রয়ে যায় তার রেশ। তবে বেশিরভাগ স্বপ্নই ঘুম ভাঙার পর মনে থাকে না।

তবে কিছু দিন আগে স্বপ্ন নিয়ন্ত্রণকারী যন্ত্রের উদ্ভাবন স্বপ্ন ক্রিয়ায় দারুণ এক পরিবর্তন এনেছে। সেই যন্ত্রের সহায়তায় যেমন ইচ্ছামতো স্বপ্ন দেখা যায় তেমনি স্বপ্নের আধেয়ও দীর্ঘ সময় মস্তিষ্কে জমা থাকে।

এ ছাড়া গবেষকরা আরেকটি উপায় খুঁজে পেয়েছেন যা মস্তিষ্কে স্বপ্ন জমা রাখতে সহায়তা করে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে, ভিটামিন বি৬ মানুষকে স্বপ্ন মনে রাখতে সাহায্য করে।

গবেষণায়, ১০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের মধ্যে একদল ঘুমানোর আগে ২৪০ মি.গ্রা. ভিটামিন বি৬ ট্যাবলেট দেওয়া হয়। অন্যদলকে ওষুধের উপাদানবিহীন পিল সেবন করতে দেওয়া হয়। পরে দেখা যায়, যারা ভিটামিন বি৬ গ্রহণ করেছিলেন তারা অন্য দলের চেয়ে ভালো এবং ৬৪ শতাংশ বেশি বিস্তারিত স্বপ্ন মনে রাখতে পেরেছেন।

গবেষকরা দেখান, ভিটামিন বি৬ ঘুমের সময় ট্রিপ্টোফ্যানকে সেরোটোনিনে রূপান্তর করে এবং গভীরভাবে ঘুমাতে সাহায্য করে।

গবেষকদের দাবি, ঘুমাতে যাওয়ার আগে ভিটামিন বি৬-সমৃদ্ধ খাবার, ট্যাবলেট ইত্যাদি গ্রহণ স্বপ্ন দেখাকে উৎসাহিত করে। তারা আরেকটি জরিপে দেখেন, ভিটামিন বি৬-এর ঘাটতি পূরণের চিকিৎসায় রোগীদের স্বপ্ন স্মরণ রাখার ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। ২০০২ সালের একটি গবেষণায়ও দেখা যায়, ঘুমানোর আগে উচ্চমাত্রার বি৬ গ্রহণ স্বপ্ন মনে রাখা বৃদ্ধি করে। তাই যারা স্বপ্ন ধরে রাখতে চান তাদের জন্য এবং দুঃস্বপ্ন ও পোস্ট ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিজঅর্ডারের চিকিৎসা পেতে চান তাদের ভিটামিন বি৬ সেবন করা উচিত বলে মনে করেন গবেষকরা।