• বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
BK

ভারতে কমেছে পেঁয়াজের  উৎপাদন

ভারতে কমেছে পেঁয়াজের  উৎপাদন
সংগৃহীত ছবি

ভারতে গত মৌসুমে (জুলাই ’১৭-জুন ’১৮) পেঁয়াজের উৎপাদন সামান্য কমেছে বলে গতকাল জানিয়েছে দেশটির কৃষি মন্ত্রণালয়। এ সময় ভারতে উৎপন্ন হয়েছে প্রায় ২ কোটি ২০ লাখ টন পেঁয়াজ। ২০১৬-১৭ মৌসুমে উৎপন্ন হয় ২ কোটি ২৪ লাখ টন পণ্য। ভাতীয় সংবাদমাধ্যম ইকোনমিক টাইমস এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

কৃষি মন্ত্রণালয় পেঁয়াজের উৎপাদন কমেছে জানালেও আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়ছে পেঁয়াজের চাহিদা। ভারতীয় পেঁয়াজের দাম কিছুটা কম হওয়ায় ব্যবসায়ীরা ঝুঁকছেন এখানকার পণ্যেই। আর এতে পেঁয়াজ রফতানি বাড়ছে। চলতি বছরের ১৩ জুলাই মার্চেন্ডাইজার এক্সপোর্ট ফ্রম ইন্ডিয়ান স্কিম (এমইআইএস) বাড়িয়েছে ভারত সরকার। ফলে টনপ্রতি ভারতীয় পেঁয়াজের আন্তর্জাতিক দর ২২০ ডলার থেকে নেমেছে ১৯৫ ডলারে। আগামী বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত এ দরেই পেঁয়াজ রফতানি করবে ভারত। এ দর চীনা পেঁয়াজের তুলনায় কম। তাই চীনা পণ্য ছেড়ে এখন বিভিন্ন দেশের ব্যবসায়ীরা গুরুত্ব দিচ্ছেন ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানিতে।

অনিয়ন এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট অজিত শাহ বলেন, এমইআইএস চীনকে জোর প্রতিযোগিতায় শামিল করেছে। এ কারণেই পূর্বাঞ্চলের দেশগুলোয় বাড়ছে ভারতের পণ্য রফতানি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ভারতে পেঁয়াজ উৎপাদন কমছে। এতে অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণ করতে গিয়ে রফতানি কমতে পারে। বেশি দামেও পণ্য কিনতে হতে পারে দেশি ভোক্তাদের।