• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
BK

নির্বাচনকালীন সরকার ২০ দিনের মধ্যে : অর্থমন্ত্রী

নির্বাচনকালীন সরকার ২০ দিনের মধ্যে : অর্থমন্ত্রী
সংরক্ষিত ছবি

আগামী ২৭ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এ ছাড়া আগামী ২০ দিনের (২৫ সেপ্টেম্বর) মধ্যে বর্তমান সরকারের কাঠামো ভেঙে দিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা হবে বলেও জানান তিনি। গতকাল বুধবার বিকালে সচিবালয়ে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী কাউন্সিলরদের নিয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে আলোচনা করে মনে হয়েছে, আগামী ২৭ ডিসেম্বর তারা জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা ভাবছে। এ জন্য সরকারও প্রস্তুতি নিচ্ছে। আগামী ২০ দিনের মধ্যে বর্তমান সরকারের কাঠামো ভেঙে দিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা হবে।’ নির্বাচনকালীন সরকারের আকার নিয়ে তিনি বলেন, ‘সরকার হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মডেল অনুযায়ী। প্রধানমন্ত্রীকে প্রধান করে স্বল্পসংখ্যক মন্ত্রী নিয়ে এ সরকার হবে। বর্তমান সংসদের মেয়াদ ২০১৯ সালের ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। ফলে এর আগে এই সংসদ ভেঙে দেওয়া হবে না।’

নির্বাচনকালীন মন্ত্রিপরিষদে বিএনপির থাকার সুযোগ নেই বলেও জানান মুহিত। তিনি বলেন, ‘বিএনপি বা সুশীল সমাজের প্রতিনিধি কারোরই নির্বাচনকালীন সরকারে থাকার সুযোগ নেই। সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সংসদে যেসব দলের প্রতিনিধিত্ব রয়েছে, তাদের মধ্য থেকেই এ পরিষদ গঠন করা হবে।’ এ সময় তিনি ওই মন্ত্রিসভার নাম ‘নির্বাচনকালীন সরকারের মন্ত্রিসভা’ হবে বলে মন্তব্য করেন।

নির্বাচনে বিএনপির অংশ নেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি আশা করি নির্বাচনে বিএনপি আসবে। না এলে তো তারা অদৃশ্য হয়ে যাবে।’ ইভিএম (ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিন) ব্যবহার প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘ইভিএম ছাড়া নির্বাচন কখনোই পুরোপুরি সুষ্ঠু হবে না। নির্বাচন কমিশনে অনেক সংস্কার হয়েছে। এবার নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।’