• সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
BK

দাম কমেছে কাঁচা মরিচ-পেঁয়াজের

দাম কমেছে কাঁচা মরিচ-পেঁয়াজের
সংরক্ষিত ছবি

প্রায় দেড় মাসের বেশি সময় পর কিছুটা কমতির দিকে পেঁয়াজের ঝাঁজ। আর কাঁচামরিচের ঝাল স্বাভাবিক হচ্ছে দু’মাসের ব্যবধানে। এক সপ্তাহের ব্যবধানে রাজধানীর বাজারে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজে পাঁচ টাকা এবং কাঁচামরিচের দাম ৪০ টাকা পর্যন্ত কমেছে।

এসব পণ্যের ব্যবসায়ীরা গতকাল জানিয়েছেন, কোরবানির অতিরিক্ত চাহিদা ফুরিয়ে আসায় কমে আসছে পণ্য দুটির দাম। সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে পেঁয়াজের দাম আরো কয়েক দফা কমার সম্ভাবনা রয়েছে। রামপুরা, খিলগাঁও. শান্তিনগর ও কারওয়ান বাজারে গতকাল প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে খুচরায় ৫০ থেকে ৫৫ টাকা কেজি দরে, যা সপ্তাহখানেক আগেও ৫ টাকা বেশি ছিল। একইভাবে আমদানি করা পেঁয়াজ ৩০ থেকে সর্বোচ্চ ৩৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। এসব পেঁয়াজের দামও একই হারে কমেছে বলে জানান বিক্রেতারা।

অপরদিকে আগে বাজারে প্রতিকেজি কাঁচামরিচ বিক্রি হতো ১০০ থেকে ১২০ টাকায়, যা সপ্তাহের ব্যবধানে গতকাল ৪০ টাকা পর্যন্ত কমে ৬০ থেকে ৮০ টাকা দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে। তবে কিছু বাজারে দামের হেরফেরও রয়েছে। আবার ভ্রাম্যমাণ বিক্রেতাদের ওই বাজার দরের থেকেও কম দামে মরিচ বিক্রি করতে দেখা গেছে। কারওয়ান বাজারে পাইকারি আড়তে এসব মরিচ অর্ধেক দামে কেনাবেচা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এক বিক্রেতা। তিনি বলেন, কয়েকদিন রাতে আড়তে প্রতিকেজি মরিচের দাম গেছে ৪০ থেকে ৪২ টাকা।

এদিকে ঈদের পর থেকেই ঊর্ধ্বমুখী সবজির বাজার, যা এক সপ্তাহ ধরে সেই দরেই স্থিতিশীল রয়ে গেছে। প্রতিকেজি সবজি কিনতে হলে গুনতে হচ্ছে ৫০ টাকার উপরে। শীতের যেসব সবজি আগাম বাজারে মিলছে, সেসব সবজির দাম শতক পেরিয়ে গেছে। শান্তিনগর বাজারে নুরুজ্জামান নুরু নামের এক বিক্রেতা বলেন, মাঝেমধ্যে কোনো কোনো সবজির দাম ৫-১০ টাকা বাড়ে-কমে। তবে গড়পড়তা বলতে গেলে পেঁপে ছাড়া প্রায় সব সবজি ৫০ টাকার আশপাশে রয়েছে। আর শীতের শিম, টমেটো বা ফুলকপির দাম হিসাব করলে ১০০ টাকার উপরে।

এদিকে ফার্মের মুরগির দাম কমতির দিকে থাকলেও ডিমের দাম আবারো বাড়ছে। কোরবানির ঈদের মধ্যে চাহিদা কমে যাওয়ায় দামও কিছুটা কমে ৩০-৩২ টাকায় নেমে এসেছিল। এখন আবার ৩৪ টাকা হালি হয়ে গেছে। তবে ডজন হিসেবে ডিম কিনলে কিছুটা পড়তা হচ্ছে। প্রতি ডজন ডিম ৯২-৯৬ টাকা দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে।

বিভিন্ন বাজারে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে ১২০ থেকে ১৪০ টাকা পর্যন্ত। এর মধ্যে কারওয়ান বাজারের মতো বড় বাজারগুলোতে ১২০ টাকা কেজি দরে প্রতিকেজি মাংস মিললেও অন্যান্য খুচরা বাজারে কিনতে হয়েছে ১৪০ টাকা পর্যন্ত।