• শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪, ১১ মহররম ১৪৪০
BK
আইডিবির রিজিওনাল হাব

ঢাকায় আইএসডিবিজির আঞ্চলিক কার্যালয়

পরিচালিত হবে ২৬ দেশের কর্মকাণ্ড
ঢাকায় আইএসডিবিজির আঞ্চলিক কার্যালয়
ছবি -পিআইডি

ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক গ্রুপের (আইএসডিবিজি) ঢাকাস্থ ‘রিজিওনাল হাব’ উদ্বোধন করা হয়েছে গতকাল রোববার। রাজধানীর হোটেল র্যাডিসনে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আঞ্চলিক কার্যালয়টি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠানে আইএসডিবি প্রেসিডেন্ট বান্দার বিন মোহাম্মদ বিন হামজা আসাদ আল হাজ্জার উপস্থিত ছিলেন। পরে এ উপলক্ষে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইএসডিবি কার্যালয়ে যৌথ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। জানানো হয়, আগারগাঁওয়ের এই আইএসডিবি ভবনের ১০ তলায় আপাতত আইএসডিবিজির আঞ্চলিক কার্যালয়ের কার্যক্রম চলবে। আঞ্চলিক কার্যালয়ের জন্য আগারগাঁওয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মূল কার্যালয়ের উল্টোদিকে দুই একর জায়গায় নির্মাণ করা হবে বহুতল ভবন। বর্তমানে সেটির নকশার কাজ চলছে। সেখানেই স্থায়ী হবে আইএসডিবিজির আঞ্চলিক অফিস। এশিয়া ও প্যাসিফিক অঞ্চলের ২৬টি দেশের আইএসডিবির কর্মকাণ্ড পরিচালিত হবে ঢাকার এই অফিস থেকে। এর মধ্যে আইএসডিবির সদস্য দেশ যেমন রয়েছে; তেমনি সদস্য নয় এমন দেশও রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে অবকাঠামো খাতে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে আইএসডিবি প্রেসিডেন্ট বলেন, আইএসডিবির সদস্য দেশগুলোর অবকাঠামো খাতে ১ লাখ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করতে হবে। এর বিপরীতে আইএসডিবিসহ বিভিন্ন সহযোগী সংস্থার মোট তহবিলের পরিমাণ ১৪ হাজার ৬০০ কোটি ডলার। এ খাতে ব্যাপক অর্থায়ন ঘাটতি থেকেই যাচ্ছে। আর এই ঘাটতি পূরণ করতে পারে বেসরকারি খাত।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আশা প্রকাশ করেন, ঢাকা থেকে ২৬টি দেশের কার্যক্রম পরিচালনায় বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে। তিনি জানান, বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে আইএসডিবিজির আঞ্চলিক কার্যালয় খোলা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আইএসডিবি প্রেসিডেন্ট জানান, উদ্ভাবক ও বিজ্ঞানী তৈরিতে ৫০ কোটি ডলারের একটি তহবিল গঠন করা হয়েছে। নাম দেওয়া হয়েছে ‘ট্রান্সফরমারস ফান্ড’। আইএসডিবির সদস্য দেশগুলোর মধ্যে উদ্ভাবক, বিজ্ঞানী ও উদ্যোক্তা তৈরিতে এই টাকা ব্যয় হবে। তিনি বলেন, ঋণ পরিশোধে বাংলাদেশ অনেক ভালো করছে। তা ছাড়া জিডিপি প্রবৃদ্ধি বাড়ছে, আর্থিক ব্যবস্থাপনায় উন্নতি করেছে। ভৌগোলিক দিক থেকেও সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। সবকিছু বিবেচনা করেই ঢাকায় আঞ্চলিক হাব তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, ঢাকা কার্যালয় থেকে পার্শ্ববর্তী ভারত, আফগানিস্তান, মালদ্বীপ, চীন, শ্রীলঙ্কাসহ অনেক দেশে কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। আইএসডিবির অর্থায়ন ও কর্মকাণ্ড বিকেন্দ্রীকরণের যে পরিকল্পনা রয়েছে, এটি তারই অংশ। শুধু মুসলিম দেশগুলোতে নয়, অমুসলিম দেশগুলোতেও ঋণ সহযোগিতা দিচ্ছে আইএসডিবি। যেখানে কারিগরি সহযোগিতা দেওয়া প্রয়োজন, সেখানে তা দেওয়া হচ্ছে। আইএসডিবির সদস্য নয়, এমন দেশগুলোকেও ঋণ দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, আইএসডিবি আগামী ৩ বছরের জন্য ‘মেম্বার কান্ট্রি পার্টনারশিপ’ তৈরি করছে। এটি করা হবে নতুন করে। এক প্রশ্নের জবাবে আইএসডিবি প্রেসিডেন্ট বলেন, ঢাকায় নতুন যাত্রা করা আঞ্চলিক অফিসে মোট ১৪ জন কর্মকর্তা কাজ করবেন। এদের মধ্যে ১০ জনই বাংলাদেশি। আরেক প্রশ্নে তিনি বলেন, ১৯৭৪ সাল থেকে আইএসডিবি বাংলাদেশে প্রায় ২২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করেছে। এসব বিনিয়োগ এসেছে পানি, অবকাঠামো, পরিবহনসহ বিভিন্ন খাতে। নতুন আঞ্চলিক হাব হওয়ায় সহযোগিতা আরো বাড়বে।

আইএসডিবি প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা ড. হায়াত সিন্ধি বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রায় (এসডিজি) ১৭টি লক্ষ্য অর্জন করতে হবে। এতদিন আইএসডিবি শুধু অবকাঠামো, হাসপাতাল, বিশ্ববিদ্যালয় ইত্যাদি খাতে বিনিয়োগ করলেও এসডিজির লক্ষ্য অর্জনে এসবের পাশাপাশি এখন বিদ্যুৎ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি খাতে বিনিয়োগ করবে।