• শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
কয়লা চুরি শুরু করে বিএনপি,  চোর ধরেছে আ.লীগ: হাছান

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ

ছবি: সংরক্ষিত

রাজনীতি

কয়লা চুরি শুরু করে বিএনপি,  চোর ধরেছে আ.লীগ: হাছান

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৭ জুলাই ২০১৮

দিনাজপুরে বড়পুকুরিয়ায় কয়লা চুরি বিএনপিই শুরু করেছিল বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কয়লা চোরকে ধরেছে।

আজ শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের রাজনীতি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ।

 হাছান মাহমুদ বলেন, ‘২০০৫ সালে আপনারা (বিএনপি) বড় পুকুরিয়ার কয়লা চুরিটা শুরু করেছিলেন। সেই ধারাবাহিতায় কিছু কর্মকর্তা চুরির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। আমাদের সরকার সেই চোরদের ধরেছে। এই চোরদের ধরার প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ২০০৫ সালে কারা চুরির সঙ্গে যুক্ত ছিল, সেটিও নিশ্চয় বেরিয়ে আসবে।’

আওয়ামী লীগের অন্যতম মুখপাত্র হাছান মাহমুদ বলেন, যারা ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় চুরি এবং দুর্নীতির কারণে বাংলাদেশ পরপর পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়; যাদের চেয়ারপারসন এতিমের টাকা চুরি করার কারণে দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে সাজা ভোগ করছেন; যাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দুই–দুইটি মামলায় দণ্ডিত হয়ে দেশান্তরি হয়েছেন এবং লন্ডনে টেক্স ফাইলে চুরির অর্থ জায়েজ করার জন্যই তিনি বলেছেন জুয়া খেলার মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করেছেন; যাদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে এফবিআই দেশে এসে সাক্ষ্য দিয়ে যায়; যাদের চেয়ারপারসনের প্রয়াত পুত্র দেশান্তরি হয়ে মালয়েশিয়ায় শ্রমিক হিসেবে নিবন্ধিত হয়েছিলেন; যাদের দুর্নীতি সিঙ্গাপুরে উদ্‌ঘাটিত হয়; যাদের দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের কারণে তাদের দলের নেতাদের আমেরিকাতে শাস্তি হয়, তারা আবার বড় গলায় কথা বলেন। অর্থাৎ চোরের মায়ের বড় গলা।

আয়োজক সংগঠনের সিনিয়র সহসভাপতি শেখ নওশের আলীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক হেদায়েত ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আকতার হোসেন, সংগঠনের সভাপতি মো. জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাদাত হোসেন।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads