• বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
খালেদার মুক্তি অসম্ভব জেনেই বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বিএনপি: হানিফ

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ

ছবি : সংগৃহীত

রাজনীতি

খালেদার মুক্তি অসম্ভব জেনেই বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বিএনপি: হানিফ

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আইনি প্রক্রিয়ায় বেগম জিয়ার মুক্তি অসম্ভব জেনেই বিএনপি এখন জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ।

 আজ শুক্রবার সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি। এ সময় বিএনপি নির্বাচনে আসবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন হানিফ।

তিনি বলেন, ‘কারাগারের মধ্যে আদালত স্থাপন করা যদি সংবিধান লঙ্ঘন হয়, তাহলে জিয়াউর রহমান রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করে কর্নেল তাহেরকে কারাগারের মধ্যে বিচার করে ফাঁসি দিয়েছিল। তখন কী সংবিধান লঙ্ঘন হয়েছিলো?'

তিনি বলেন, ‘বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়া ১২০০ মুক্তিযোদ্ধা অফিসারকে কারাগারের মধ্যে বিচার করে ফাঁসি দিয়েছিলেন। এগুলো কী সংবিধান বিরোধী ছিল নাকি সংবিধান লঙ্ঘন ছিল। বিএনপির কাছে আমার এই প্রশ্ন।’ 

মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, ‘বেগম জিয়া নিজেকে নির্দোষ ভাবেন তাহলে কেন আদালতের মাধ্যমে আইনি লড়াই চালিয়ে প্রমাণ করছেন না। কারণ আপনি এতিমের টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এখন সরকারের ওপর মিথ্যাচার করে বিভ্রান্তি চালাচ্ছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘বর্তমান সরকার সবসময় ন্যায় কাজ করেছি, কখনও অন্যায় করেনি। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি একমাত্র আদালতের মাধ্যে আসতে পারে। আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া দ্বিতীয় আরেকটি রাস্তা আছে, সেটা মহামান্য রাষ্ট্রপতি ক্ষমা করে দিতে পারেন। যদি উনি রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। এটা ছাড়া মুক্তি পাবার কোনো সম্ভাবনার পথ নেই।’ 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads