• বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ২০১৮

ফেনীতে বিএনপির মনোনয়নপত্র নিলেন শিবির নেতা আকাশ

লোগো বিএনপি

রাজনীতি

ফেনীতে বিএনপির মনোনয়নপত্র নিলেন শিবির নেতা আকাশ

  • সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১৬ নভেম্বর ২০১৮

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনী-৩ আসনে বিএনপি থেকে নির্বাচন করার জন্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন আলোচিত শিবির ক্যাডার পেয়ার আহমদ আকাশ। ২০০৫ সালে ফেনী পৌর এলাকায় একটি অত্যাধুনিক একে-৪৭ রাইফেলসহ র্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন তিনি। গত ১৩ নভেম্বর তিনি বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ে দলবল নিয়ে উপস্থিত হয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।

আকাশ তার নিজ নামের ফেসবুক আইডিতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহের ছবি যুক্ত করে স্ট্যাটাস দিলে আসনটির সর্বত্র আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।

স্ট্যাটাসে আকাশ উল্লেখ করেন- ‘ফেনী-৩ আসনে আমি প্রার্থী হলে ক্ষমতাসীন জোটের প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি যদি আমাকে ফেনী-৩ আসন থেকে প্রার্থী করে, আর ভোটের দিন যদি দুপুর ১২ পর্যন্ত ভোটাররা ভোট দিতে পারে (সারা দিন লাগবে না) তাহলে আমি বিপুল ভোটে বিজয়ী হব। আর আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে পারি ক্ষমতাসীন জোটের জামানত পর্যন্ত থাকবে না ইনশাআল্লাহ।’

২০০৫ সালের ১৯ আগস্ট ফেনী শহরের পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি সংলগ্ন হারুনের বাড়ির সামনে থেকে র্যাব তাকে একটি একে-৪৭ রাইফেলসহ গ্রেফতার করে। দীর্ঘ কারাভোগের পর জামিনে মুক্তি পেয়ে আকাশ ২০০৮ সালে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান।

২০১৮ সালের ৩ এপ্রিল রাজধানী কুয়ালালামপুরের বুকিত বিনতাংয়ের জালান ইম্বির একটি হোটেল থেকে মালয়েশিয়া পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ বুকিত আমানের সদস্যরা তাকে আটক করে। কারা ভোগের পর মুক্তি পেয়ে পুনরায় বাংলাদেশ ফিরে এসে গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে ১৩ নভেম্বর নির্বাচন করার জন্য বিএনপিদলীয় মনোনয়ন ফরম উত্তোলন করেন।

দাগনভূঞা উপজেলা বিএনপির সভাপতি আকবর হোসেন বলেন, আকাশ কখনো বিএনপি করেনি। এমনকি বিএনপির কোনো অঙ্গসংগঠনের সঙ্গে জড়িত নয়। সে শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তার মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের খবরে দলীয় নেতাকর্মীরা বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছেন।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads