• বৃহস্পতিবার, ৪ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
ads
জনগণের প্রতি সাংসদ মাহী বি চৌধুরীর আহবান

মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ মাহী বি চৌধুরী

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

রাজনীতি

করোনা মোকাবেলায়

জনগণের প্রতি সাংসদ মাহী বি চৌধুরীর আহবান

  • শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ১০ এপ্রিল ২০২০

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের নির্বাচনী এলাকা শ্রীনগর ও সিরাজদিখান উপজেলার সর্ব সাধারণের প্রতি সরকার ঘোষিত সকল আইন মেনে নিরাপদে থাকার জন্য সাংসদ মাহী বি চৌধুরী আহবান জানিয়েছেন।

আজ শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শ্রীনগর প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকদের সাথে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, ডিসি সাহেবের সাথে কথা হয়েছে। এক ইউনিয়ন থেকে অন্য ইউনিয়নে যাতায়াত বন্ধ করতে হবে এরকম সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যেই নেয়া হয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ইউনিয়নের প্রবেশ পথসমূহে ব্যারিকেড স্থাপন করে চলাচল নিয়ন্ত্রণ করবেন। তবে জরুরী পরিসেবা খাদ্য, চিকিৎসা, ওষুধ ও কৃষিপণ্য সরবরাহের যানবাহন ও কর্মী এর আওতা বহির্ভূত থাকবে। এখন খাদ্য সংকট নেই তবে এপ্রিল থেকে মে মাসে কিছুটা খাদ্য সংকট দেখা দিতে পারে। এখানে চিকিৎসার ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। অন্য যে কোন জেলার চাইতে আমাদের এখানে অক্সিজেন বেশী মজুদ রয়েছে। যারা জ্বর, সর্দিতে ভূগছেন তারা যেন রোগ গোপন না করে চিকিৎসা সেবা নিতে আসেন। ভয় পেয়ে রোগ গোপন করে যারা চিকিৎসা সেবা নিতে আসছেন না তারাই বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। ভয়ের কোনও কারণ নেই, কেউ কেউ মনে করছেন, কম বয়স্করা করোনায় আক্রান্ত হবেনা এটা ভুল।

তিনি আরো বলেন, অতিদ্রুত লকডাউন করতে হবে তা না হলে করোনা পরিস্থিতি মারাত্বক আকার ধারণ করতে পারে। সেনা বাহিনীর টহল জোরদার করার জন্য সংশ্লিষ্ট মহলের সাথে কথা হয়েছে। আগামীকাল থেকেই সেনা বাহিনীর তৎপরতা আরো বৃদ্ধি পাবে বলে আশা রাখি। ব্যক্তিগত কাজে যুক্তরাষ্ট্রে এসে আটকা পরে গেছি। তবুও করোনা সংক্রমণ রোধে আমার নির্বাচনী এলাকার শ্রীনগর ও সিরাজদিখানে চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজ খবর নিয়ে সমস্ত ব্যবস্থা গ্রহন করেছি। করোনার ভেক্সিন খুব শীঘ্র আসবে বলে মনে হচ্ছেনা।

তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রত্যেককে বাধ্যতামূলক অনেক ধরনের অভ্যাস পরিত্যাগ করতে হবে। তাহলে আমরা একটা নতুন পৃথিবী পবো। তা না হলে আমাদের মারাত্বক ক্ষতির মুখে পরতে হবে। সমস্ত ডাক্তার, পুলিশদের জন্য পিপিইসহ তাদের সুরক্ষা সামগ্রীর ব্যবস্থা করতে হবে। তারা যদি করোনায় আক্রান্ত হয়ে যান তাহলে রোগীদের জন্য কাজ করার লোক থাকবে না।

মাহী বি চৌধুরী বলেন, মসজিদ বন্ধ করা হয়নি বরং প্রতিটি ঘরকে আল্লাহ মসজিদ বানানোর একটি সুযোগ করে দিয়েছেন। এখন থেকেই আমাদে সর্তক অবস্থানে থাকতে হবে। নিজে মাস্ক পরবেন অন্য কেও মাস্ক পরতে বাধ্য করবেন। করোনা রোধে সরকারি বিধিনিষেধ মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলবেন। আপনি নিরাপদে থাকুন অন্য কেও নিরাপদে রাখুন এ আহবান জানান সাংসদ মাহী বি চৌধুর।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads