• বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads

ছবি: ইন্টারনেট

সোশ্যাল মিডিয়া

অভিসারের সেবাসহ ফেসবুকের মহাপরিকল্পনা ঘোষণা

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ০৩ মে ২০১৮

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম থেকে এবার ব্যক্তিগত জীবনে যোগসূত্র স্থাপনের মাধ্যম হয়ে উঠছে ফেসুবক। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ সেই ঘোষণাই দিলেন তাদের বার্ষিক এফএইট ডেভেলপার কনফারেন্সে।

গত ১ মে ক্যালিফোর্নিয়ায় অনুষ্ঠিত ওই কনফারেন্সে ব্যবহারকারীদের জন্য সঙ্গী খোঁজার একটি ডেটিং সার্ভিস বা অভিসার সেবা চালুর ঘোষণা দেন জাকারবার্গ।

ফেসবুকের নতুন সেবার এই ঘোষণাটি এমন সময় এলো যখন ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরি ইস্যুতে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিকভাবে বিভিন্ন দেশে চাপের মুখে পড়েছে। এছাড়া তথ্যচুরির অপবাদের কারণে ‘ডিটিল ফেসবুক’ নামের প্রচারণার মুখে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি। আর এ কারণেই নতুন এ উদ্যোগকে ক্ষতিপূরণের পদক্ষেপও বলছেন অনেকে।

মার্ক জাকারবার্গ সে সময় ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্যের অপব্যবহার নিয়ে পদক্ষেপের কথাও জানান। এ ছাড়া ফেসবুকের জন্য নতুন কয়েকটি ফিচার আনারও ঘোষণা দেন তিনি।

জাকারবার্গ বলেন, ফেসবুকের ২০ কোটি ব্যবহারকারী নিজেদের সিঙ্গেল বা সঙ্গী ছাড়া বলে উল্লেখ করেছেন। এখন আমরা যদি তাদের জন্য একটি সার্থক সম্পর্ক তৈরি করে দিতে পারি, তা সবার জন্যই অর্থপূর্ণ হবে।

তিনি বলেন, সঙ্গী খুঁজে পাওয়ার সেবা নিতে হলে ব্যক্তিগত অনেক কিছু শেয়ার করতে হবে। সেখানে ব্যবহারকারীরা একে অন্যকে বার্তা পাঠাতে পারবেন।

জাকারবার্গ জানান, যত দ্রুত সম্ভব সেবাটি তারা চালু করতে চান। তিনি বলেন, তাদের মূল উদ্দেশ্য ফেসবুক সদস্যদের মধ্যে স্থায়ী সম্পর্ক তৈরি করা। নতুন এই ফিচারে বর্তমান বন্ধু তালিকায় থাকা ব্যক্তিদের বাইরে রাখা হবে।

এদিকে জাকারবার্গের এ ঘোষণার পরই জনপ্রিয় ডেটিং অ্যাপ টিন্ডারের মূল প্রতিষ্ঠান ম্যাচ গ্রুপের শেয়ারের দাম ২২ শতাংশ পড়ে গেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। এ ছাড়া চাপে পড়তে যাচ্ছে অভিসারের আরেকটি সাইট বাম্বল।

খবর অনুসারে ফেসবুকের নতুন এই সেবাটির নাম হবে শুধুই ‘ডেটিং’। আর সেটা পাওয়া যাবে ফেসবুকের নতুন একটি অ্যাপের মাধ্যমে।

ফেসবুকের এই অভিসার সেবা পেতে চলতি ফেসবুক প্রোফাইলের পাশাপাশি নতুন আরেকটি প্রোফাইল খুলতে হবে। তবে ডেটিং অ্যাপে খোলা  প্রোফাইলের কোনো বিষয় মূল প্রোফাইলে দেখা যাবে না। এই প্রোফাইলটি ব্যবহারকারীর নামের প্রথম অংশ দেখাবে।

প্রোফাইলটির আলাদা ইনবক্সও থাকবে। তবে মেসেঞ্জারের মতো তাতে ছবি, ভিডিও বা লিঙ্ক শেয়ার করা যাবে না। প্রাথমিক যোগাযোগে নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করেই ফেসবুক এই অপশনটি রাখবে বলে খবরে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে মার্ক জাকারবার্গ বলেন, আমাদের নতুন সেবাটি কেবল সময় কাটানোর কোনো সেবা নয়। দীর্ঘমেয়াদি বন্ধনের জন্য সেবাটি চালু করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এ জন্যই একদম নবিশ ব্যবহারকারীদেরও তথ্যের নিরাপত্তা নিয়ে কোনো সমস্যা হবে না।

জাকারবার্গ আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন, ২০১৮ সাল হতে যাচ্ছে তাদের জন্য একটি বিশেষ বছর। সে মতোই তাদের এবারের বার্ষিক এফএইট ডেভেলপার কনফারেন্সে আরো কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ ও ফিচারের কথা জানান তিনি।

নিরাপত্তা ইস্যু

ব্যক্তিগত তথ্যের অপব্যবহার নিয়ে সমালোচনার মুখে রয়েছে ফেসবুক। এ অবস্থায় মার্ক জাকারবার্গ ঘোষণা দিয়েছেন, আগের মতো আর ঘটবে না। ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্যের অপব্যবহার রুখে দিতে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপের কথাও তিনি জানিয়েছেন।

তিনি জানান, তৃতীয় পক্ষের কোনো ওয়েবসাইট এবং অ্যাপ প্রোফাইল থেকে তথ্য সংগ্রহ করলে তা ফেসবুক ব্যবহারকারীরা নিজেরাই জানতে পারবেন। এ ছাড়া ব্যবহারকারী চাইলে নিজেদের সম্পর্কে তথ্য মুছে দেওয়া যাবে।

একই সঙ্গে নিজেদের প্রোফাইলে ব্যক্তিগত বিস্তারিত দেওয়া থেকে ভবিষ্যতে ব্যবহারকারীদের বিরত করবে ফেসবুক। তবে এসব পদক্ষেপ বাস্তবায়ন হতে আরো কয়েক মাস সময় লেগে যাবে বলে একটি পৃথক ব্লগ পোস্টে জানিয়েছে ফেসবুক।

ভার্চুয়াল রিয়েলিটি হেডসেট

ফেসবুকের জন্য নতুন কয়েকটি ফিচারও তিনি ঘোষণা দিয়েছেন জাকারবার্গ। তিনি জানান, ফেসবুক নতুন একটি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি হেডসেট আনবে। এতে কোনো স্মার্টফোন বা কম্পিউটার ছাড়াই ছবি বা ভিডিও দেখা যাবে।

এ ছাড়া ইনস্টাগ্রামে ভিডিও চ্যাট আর অগমেন্টেড রিয়েলিটি ফিল্টার যোগ হচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপেও আসছে গ্রুপ ভিডিও চ্যাট পদ্ধতি।

ঘৃণা বাটন

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী নতুন পোস্ট দেওয়ার পর তারা একটি নতুন বার্তা দেখতে পাচ্ছেন, যেখানে জানতে চাওয়া হচ্ছে যে, এটি ঘৃণা বা বিদ্বেষ ছড়ানোমূলক কোনো বক্তব্য কি না। এমনকি জাকারবার্গের বক্তব্যের নিচেও সেটি লেখা রয়েছে। তবে ফেসবুক এখনো এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads