• শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
ads
ভারতে শীর্ষে টিকটক

ছবি : সংগৃহীত

সোশ্যাল মিডিয়া

ভারতে শীর্ষে টিকটক

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ১২ মে ২০১৯

ভারতে সম্প্রতি টিকটক নিষিদ্ধের বিষয়টি হাইকোর্ট পর্যন্ত গড়িয়েছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অ্যাপটির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে আদালত। ঠিক তারপরই আবারও ফ্রি অ্যাপ হিসেবে দেশটিতে শীর্ষস্থান দখল করেছে টিকটক।

ছোট ভিডিও তৈরি, তাতে নতুন করে মিউজিক যুক্তসহ কয়েক ধরনের কাজ করে সামাজিক মাধ্যমে ভিডিও আপলোড করা যায় অ্যাপটির সাহায্যে।

দেশটির চেন্নাইয়ে প্রথমে অ্যাপটি নিষিদ্ধ করে সেখানকার আদালত। পরে গুগল ও অ্যাপল তাদের প্লে-স্টোর এবং অ্যাপ-স্টোর থেকে অ্যাপটি সরিয়ে দেয়। গত ২৪ এপ্রিল চূড়ান্ত রায় টিকটকের পক্ষে গেলে আবারও স্টোরগুলোতে ফিরে আসে অ্যাপটি।

বিনামূল্যে ডাউনলোড করা যায় টিকটক অ্যাপ। চীনের বাইটড্যান্স নামের একটি প্রতিষ্ঠানের তৈরি অ্যাপটি ভারতে খুবই জনপ্রিয়। পাশাপাশি অ্যাপটিকে নিষিদ্ধ করতে বিভিন্ন মহল থেকে কথাও ওঠে। বিশেষ করে বলা হয়, টিকটক অপ্রাপ্ত বয়স্কদের পর্নোগ্রাফিতে উৎসাহিত করছে।

এদিকে নতুন করে প্লে ও অ্যাপ-স্টোরে আসার পর এর ব্যবহার বাড়াতে দেশটিতে নতুন একটি ক্যাম্পেইন ঘোষণা করেছে টিকটক। অ্যাপটি ডাউনলোড করে হ্যাশট্যাগ দিয়ে রিটার্ন অব টিকটক লিখে পোস্ট করতে হবে। এরপর সেখান থেকে তিনজনকে নির্বাচন করবে টিকটক কর্তৃপক্ষ। যাদের এক লাখ রুপি করে পুরস্কার দেবে বলেও জানায়।

অ্যাপ বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান সেন্সর টাওয়ারের তথ্য অনুযায়ী, গত ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত ভারতে ২৪ কোটিবার ডাউনলোড হয়েছে অ্যাপটি। এ বছরের জানুয়ারিতে তিন কোটি ব্যবহারকারী এটি ইনস্টল করেছে, যা গত বছরের জানুয়ারি মাসের চেয়ে ১২ শতাংশ বেশি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads