• মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৫
ads
ভাঙনই হতে পারে ফেসবুকের সমাধান

ছবি : সংগৃহীত

সোশ্যাল মিডিয়া

ভাঙনই হতে পারে ফেসবুকের সমাধান

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ২৩ মে ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের জন্য ভাঙনই সর্বশেষ সমাধান এবং এর জন্য দীর্ঘ আইনি প্রক্রিয়ার প্রয়োজন হতে পারে বলে জানিয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের কমপিটিশন কমিশনার মারগ্রেথ ভেস্টাগার।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেট দলের একজন শীর্ষস্থানীয় রাজনীতিবিদ এবং ফেসবুকের একজন সহপ্রতিষ্ঠাতা প্রতিষ্ঠানটির ভাঙনের পক্ষে বক্তব্য দিয়েছেন। এর সূত্র ধরেই প্যারিসে অনুষ্ঠিত ভাইভাটেক প্রযুক্তি সম্মেলনে ইইউর অ্যান্টিট্রাস্ট প্রধানের কাছে ফেসবুকের ভাঙনের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ভেস্টাগার বলেন, অবশ্যই এটি হতে পারে ফেসবুকের জন্য একটি সর্বশেষ সমাধান। তিনি বলেন, এর জন্য হয়তো এক দশক আদালতে আইনি লড়াই চালাতে হবে।

চলতি মাসে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের কলেজ সহপাঠী এবং ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হিউজ নিউইয়র্ক টাইমসে লেখা এক মতামতে টেক জায়ান্ট ফেসবুককে ভাঙতে মার্কিন নিয়ন্ত্রকদের প্রতি আহ্বান জানান।

ভিন্ন এক বক্তব্যে ফেসবুকের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা শেরিল স্যান্ডবার্গ গত শুক্রবারে জানিয়েছেন, ভাঙনের মাধ্যমে ফেসবুকের অভ্যন্তরীণ সমস্যা সমাধান করা সম্ভব নয়। তিনি বলেন, এ ধরনের পদক্ষেপ চীনা প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠানগুলোকে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে।

সিএনবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্যান্ডবার্গের কাছে ফেসবুকের সর্বশেষ ভাঙনের গুঞ্জন বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। একই সঙ্গে সিলিকন ভ্যালির প্রধান প্রতিষ্ঠানগুলো সম্পর্কেও জানতে চাওয়া হয় তার কাছে।

সাক্ষাৎকারে স্যান্ডবার্গ বলেন, আপনি চাইলে ফেসবুককে ভাঙতে পারেন, আপনি চাইলে অন্যান্য টেক কোম্পানিগুলোকেও ভাঙতে পারেন। কিন্তু মানুষের যেসব বিষয়ে উদ্বেগ রয়েছে, ভাঙনের মাধ্যমে এর কোনো সমাধান করা যাবে না।

স্যান্ডবার্গ জানান, ২০০ কোটির বেশি মানুষ বর্তমানে ফেসবুক ব্যবহার করছে। নির্বাচনী নিরাপত্তা, অনলাইনে সহিংসতার প্রচারণা এবং উপাত্ত সুরক্ষা নিয়ে মানুষের মধ্যে যেসব উদ্বেগ দেখা দিয়েছে, তার সমাধান করার জন্য ফেসবুক কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এ মুহূর্তে প্রতিষ্ঠানটিকে ভাঙলে তা শুধু চীনা প্রতিদ্বন্দ্বীদের সহায়তা প্রদান করা হবে।

তিনি বলেন, টেক কোম্পানিগুলোর আকার ও ক্ষমতা নিয়ে মানুষের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিলেও, যুক্তরাষ্ট্রে একটি ভিন্ন উদ্বেগও রয়েছে। চীনা কোম্পানিগুলোর আকার ও ক্ষমতা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে এক ধরনের উদ্বেগ দেখা দিয়েছে এবং গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এসব কোম্পানি কিন্তু ভাঙতে যাচ্ছে না।

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ চলতি সপ্তাহে জানিয়েছেন, ইন্টারনেট প্ল্যাটফর্মগুলোয় নতুন একটি রেগুলেটরি ফ্রেমওয়ার্ক প্রয়োগের বিষয়ে তিনি আশাবাদী।

তিনি বলেন, সব মিলিয়ে আমি মনে করি ইন্টারনেটের প্রতি মানুষের বিশ্বাস বজায় রাখার জন্য সঠিক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা চালু করা প্রয়োজন। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এসব কথা বলেন জাকারবার্গ। ‘ক্রিয়েটিং এ ফ্রেঞ্চ রেসপন্স টু মেক সোশ্যাল মিডিয়া রেসপনসিবল’ শীর্ষক একটি প্রতিবেদন নিয়ে বৈঠকটিতে আলোচনা করা হয়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads