• রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads

ফুটবল

সালাহ'র গোলে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে লিভারপুল

  • বাসস
  • প্রকাশিত ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ওয়েস্ট হ্যামকে শনিবার ঘরের মাঠ এনফিল্ডে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে লিভারপুল। এই ম্যাচে গোল করে টানা ষষ্ঠ ম্যাচে গোল করার কৃতিত্ব দেখালেন মোহাম্মদ সালাহ। ম্যাচ শেষে দলের এই উজ্জীবিত পারফরমেন্সে দারুন সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন লিভারপুল বস জার্গেন ক্লপ।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের থেকে এক পয়েন্ট এগিয়ে ম্যানচেস্টার সিটির পিছনে থেকে টেবিলের দ্বিতীয় স্থান নিশ্চিত করেছে অল রেডসরা। কালকের ম্যাচে সালাহ ছাড়া অপর গোলগুলো করেছেন এমেরে কান, রবার্তো ফারমিনো ও সাদিও মানে। ক্লপ বলেন, ‘আমি মনে করি না একজন ম্যানেজার হিসেবে কেউ এ ধরনের ম্যাচ প্রত্যাশা করে। একজন কোচ শুধুমাত্র আশা করতে পারে। কিন্তু খেলোয়াড়রা খুব কমই এই ধরনের ম্যাচ কোচকে উপহার দিতে পারে। আমরা আজ সেটা পেয়েছি। ম্যাচটা দারুন উপভোগ্য ছিল। ম্যাচে সবকিছুই ছিল- আগ্রাসন, গভীরতা, জয়ের স্পৃহা। ফুটবলে যা কিছু প্রয়োজন আজ আমার খেলোয়াড়রা তার সবকিছুই করে দেখিয়েছে।

রোমা থেকে চলতি মৌসুমে লিভারপুলে নাম লেখানোর পরে দারুন ফর্মে রয়েছে ২৫ বছর বয়সী মিশরীয় ফরোয়ার্ড সালাহ। ইতোমধ্যেই চলতি মৌসুমে প্রিমিয়ার লীগে হ্যারি কেনের সাথে সর্বোচ্চ ২৩ গোল করেছেন। প্রিমিয়ার লীগে অভিষেকেই গোল্ডেন বুট পাবার তালিকায় সালাহকেই বিবেচনা করা হচ্ছে। কালকের ম্যাচেও তিন মিনিটের মধ্যে দলকে প্রায় এগিয়ে দিয়েছিলেন সালাহ। অল্পের জন্য ওয়েস্ট হ্যাম রক্ষা পেলেও ২৯ মিনিটে লিভারপুলকে এগিয়ে দেবার পিছনে পুরো অবদানই ছিল সালাহর। সালাহর করা দারুন এক কর্ণার থেকে কানের বুলেট হেড রক্ষা করা সম্ভব হয়নি প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক আদ্রিয়ানের। সব ধরনের প্রতিযোগিতায় এটি লিভারপুলের শততম গোল।

বিরতির পরে ৫১ মিনিটে এ্যালেক্স ওক্সালেড-চেম্বারলেইনের থ্রু বল থেকে সালাহ বাম পায়ের জোড়ালো শটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন। কিছুক্ষন পরেই কানের পাস থেকে ফারমিনো দলের পক্ষে তৃতীয় গেল করেন। ৫৯ মিনিটে বদলী বেঞ্চ থেকে উঠে এসে হ্যামার্সদের হয়ে সান্তনাসূচক এক গোল করেন মিখাইল এন্টোনিও। ৭৭ মিনিটে এন্ড্রু রবার্টসনের ক্রস থেকে মানে লিভারপুলের বড় জয় নিশ্চিত করেন।

ওয়েস্ট হ্যাম বস ডেভিড ময়েস বলেছেন, ‘পুরো ম্যাচে আমরা বেশ কিছু সুযোগ পেয়েছি। কিন্তু বিপরীতে তাদের ফরোয়ার্ডদের আটকাতে পারিনি। সব মিলিয়ে আমরা এমন একটি দলের কাছে আজ পরাস্ত হয়েছি যারা সত্যিকার অর্থেই দারুন ফর্মে আছে।

এদিকে নিজ নিজ ম্যাচে জয়ী হয়ে এবারের লীগে উন্নীত হওয়া দুই দল হাডার্সফিল্ড ও ব্রাইটন রেলিগেশন জোন থেকে নিজেদের বেশ ভালভাবেই রক্ষা করেছে। টেবিলের তলানিতে থাকা ওয়েস্ট ব্রুমউইচকে ২-১ গোলে পরাজিত করে হাডার্সফিল্ড লীগে জয় অব্যাহত রেখেছে। দলের পক্ষে দ্বিতীয়ার্ধে গোল দুটি করেছেন রাজীব ভান লা পারা ও স্টিভ মাউন্টি। এই পরাজয়ে রেলিগেশন জোন থেকে সাত পয়েন্ট পিছিয়ে গেল ওয়েস্ট ব্রুম।

সোয়ানসি সিটিকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে টেবিলের ১২তম স্থানে উঠে এসেছে ব্রাইটন। গ্লেন মারের জোড়া গোলের পরে ম্যাচের শেষের দিকে এন্থনী নকার্ট ও জার্গেন লোকাডিয়ার গোলে ব্রাইটনের বড় জয় নিশ্চিত হয়। একইসাথে ওয়েলসের দল সোয়ানসি আবারো রেলিগেশন জোনে নেমে গেছে।

ম্যাচের একেবারে শেষ মিনিটে বদলী বেঞ্চ থেকে উঠে আসা মানোলো গাব্বিয়াডিনি গোল করে বার্নলির বিপক্ষে সাউদাম্পটনের ১-১ গোলের ড্র নিশ্চিত করেছেন। এর ফলে গোল ব্যবধানে ড্রপ জোন থেকে এক পয়েন্ট উপরে উঠে কোনমতে নিজেদের বাঁচিয়ে রেখেছে সাউদাম্পটন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads