• শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads

খেলা

পদকবঞ্চিত সুলতানা

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১০ এপ্রিল ২০১৮

অন্যান্য ইভেন্টে যখন একে একে ব্যর্থ বাংলাদেশের অ্যাথলেটরা, তখন সাফল্যের দেখা পেয়েছে শুটিং। রোববার শত নিরাশার মধ্যে আশার আলোয় আলোকিত করেন শুটার আবদুল্লাহ হেল বাকী। ছেলেদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে রুপা জিতে গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে দেশকে প্রথম পদক উপহার দেন তিনি। এতে করে আনন্দে ভাসে দেশবাসী। আর গতকাল অল্পের জন্য দ্বিতীয় পদক থেকে বঞ্চিত হয় বাংলাদেশ। মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে তৃতীয় স্থান হাতছাড়া করেন উম্মে সুলতানা। ফলে চতুর্থ স্থানে থেকে সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাকে।

গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে গতকাল বাংলাদেশের দুই প্রতিযোগী জায়গা করে নেন ফাইনাল রাউন্ডে। কিন্তু পদক জিততে পারলেন না কেউই। বেলমন্ট শুটিং সেন্টারে মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের ফাইনালে উঠে চতুর্থ হন উম্মে সুলতানা। এর আগে কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে ৪১০.৫ স্কোর করে ষষ্ঠ হয়ে ফাইনালে উঠেছিলেন ২৪ বছর বয়সী এই শুটার। এই রাউন্ডে ২০২.০ স্কোর করতে পারেন তিনি। আর ২২৫.৩ স্কোর করে এই ইভেন্টে ব্রোঞ্জ জেতেন ভারতের অপুরভি চানদেলা। ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের স্বর্ণপদক জিতেছেন সিঙ্গাপুরের মার্টিনা ভেলোসো। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর ভারতের মেথুলি ঘোষ জেতেন রুপা। এই ইভেন্টের কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে বাংলাদেশের আরেক প্রতিযোগী সাইদা হাসান ৪০৭.৪ স্কোর করে দশম হওয়ায় আটজনকে নিয়ে হওয়া ফাইনালে উঠতে পারেননি।

এদিকে ছেলেদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ফাইনালে ওঠেন বাংলাদেশের শাকিল আহমেদ। কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে ৩৬৩ স্কোর করে অষ্টম হয়ে ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিলেন ২২ বছর বয়সী এই শুটার। কিন্তু ফাইনালে ষষ্ঠ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে তাকে। পাঁচ শটে তিনি স্কোর করেন ১৫০.১। কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে বাংলাদেশের আরেক প্রতিযোগী মো. আনোয়ার হোসেন ১৩তম স্থানে থেকে এই ইভেন্ট শেষ করেন। ছেলেদের এই ইভেন্টে কমনওয়েলথ গেমস রেকর্ড গড়ে সোনা জেতেন ভারতের জিতু রায়। ২৩৫.১ স্কোর করে জিতু পেছনে ফেলেন ২৩৩.৫ স্কোর করা অস্ট্রেলিয়ার ক্যারি বেলকে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads