• মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads

ফুটবল

জয়ের রেকর্ড বার্সার

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৬ এপ্রিল ২০১৮

রোমার মাঠে অপ্রত্যাশিত হার। চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায়। ট্রেবল জয়ের স্বপ্ন ধূলিসাৎ। গত সপ্তাহটি এমন দুঃস্বপ্নের মধ্য দিয়ে পার করে বার্সেলোনা। অবশেষে সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ায়। পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে থাকা ভ্যালেন্সিয়াকে হারায়। ২-১ গোলে জয় তুলে নেয়। সেই সঙ্গে লা লিগায় টানা অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়ে।

শনিবার ন্যু ক্যাম্পে বৃষ্টির দিনে স্টেডিয়ামের প্রায় ৩০ হাজার আসন ফাঁকা থাকে। তবে প্রায় ৭০ হাজার দর্শকের সামনে সমানতালে লড়ে বার্সেলোনা ও ভ্যালেন্সিয়া। শেষ পর্যন্ত সুয়ারেজ ও উমতিতির গোলে জয় পায় স্বাগতিকরা। তাতে লা লিগায় টানা ৩৯ ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়ে বার্সা। এতদিন টানা অপরাজিত থাকার রেকর্ডটি দখলে রাখে রিয়াল সোসিয়েদাদ। ১৯৭৮-৭৯ ও ১৯৭৯-৮০ মৌসুমে টানা ৩৮ ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ডটি গড়ে ক্লাবটি।

এবারের মৌসুমে ৩২ ম্যাচে ২৫টি জয় ও ৭টি ড্রয়ে ৮২ পয়েন্ট অর্জন করে বার্সেলোনা। লিগে এখনো ছয় ম্যাচ বাকি। সেখানে মাত্র দুটি জয় ও একটি ড্র হলেই লা লিগার শিরোপা ঘরে তুলবে কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দের শিষ্যরা।

পয়েন্ট টেবিলে বার্সেলোনার পরের অবস্থানে আছে আতলেটিকো মাদ্রিদ। ৩১ ম্যাচে ক্লাবটির অর্জন ৬৮ পয়েন্ট। ভ্যালেন্সিয়া হারলেও তৃতীয় স্থান ধরে রেখেছে। ৩২ ম্যাচের তাদের পয়েন্ট ৬৫। তবে এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল মাদ্রিদ মাত্র এক পয়েন্ট কমে চতুর্থ স্থানে আছে। ৩১ ম্যাচে ৬৪ পয়েন্ট অর্জন করে রিয়াল।

বার্সেলোনার জয়ে এদিন গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন গোলরক্ষক টার স্টেগান ও ফিলিপ কুতিনহো। বার্সা রক্ষক দুর্দান্ত কয়েকটি বল ফিরিয়ে দেন। দলকে বিপদমুক্ত করেন। আর স্বাগতিকদের দুটি গোলেই অবদান রাখেন কুতিনহো। তার দারুণ পাস থেকে সুয়ারেজ গোল করে দলকে এগিয়ে দেন। ব্রাজিলীয় তারকার কর্নার কিক থেকে আসা বল হেড করে লিডকে ডাবলে নেন উমতিতি।

খেলার ৪ মিনিটে গঞ্জালো গেদসের শট শূন্যে ভেসে হাতের তালু দিয়ে ফিরিয়ে দেন টার স্টেগান। দুই মিনিট পর সুয়ারেজ শট নিতে ব্যর্থ হন। তবে ম্যাচের ১৫ মিনিটে ভুল করেননি। কুতিনহোর পাস থেকে পাওয়া বল জালে জড়িয়ে দেন। ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে এটি তার দশম গোল। বার্সায় যোগ দেওয়ার পর কোনো ক্লাবের বিপক্ষে এটি তার সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ড।

খেলার ২৪ মিনিটে টার স্টেগানের ভুল পাসে বল পান ভ্যালেন্সিয়ার সোলার। গোলপোস্টের সামনে একা থাকা রদ্রিগো মোরেনো সেটি জোরালো শট নেন। তবে স্টেগানই দলকে বিপদমুক্ত করেন। তার হাতের তালুতে লেগে বল ক্রসবার স্পর্শ করে।

খেলার ৫১ মিনিটে কুতিনহোর কর্নার থেকে আসা বল হেড করে জালে পাঠান বার্সা ডিফেন্ডার স্যামুয়েল উমতিতি। স্প্যানিশ ক্লাবটির জার্সি গায়ে এটি তার প্রথম গোল।

ম্যাচের ৮৫ মিনিটে পারেজোকে ফাউল করেন উসমান ডেম্বেলে। তাতে পেনাল্টি পায় সফরকারীরা। পারেজোর শট নেওয়া বল মাটি কামড়ে গোলের দিকে যায়। টার স্টেগান সেটি ফিরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু বলটি তার শরীরের নিচ দিয়ে গোললাইন অতিক্রম করে। তবুও সফরকারীরা হার এড়াতে পারেনি।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads