• বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
জর্জিনার আংটিকে ঘিরে বাগদানের জল্পনা!

গ্যালারিতে হাজির থেকে রোনালদোকে এভাবেই উৎসাহ যোগান জর্জিনা

ছবি : ইন্টারনেট

ফুটবল

জর্জিনার আংটিকে ঘিরে বাগদানের জল্পনা!

  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২১ জুন ২০১৮

বিশ্বকাপে বুধবার মরক্কো বনাম পর্তুগালের ম্যাচের মধ্যে গ্যালারিতে হাজির ছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর বান্ধবী জর্জিনা রদরিগেস। জর্জিনার হাতের আংটি নিয়ে রোনালদোর ভক্তমহলে শুরু হয়েছে নতুন জল্পনা! আর তা হলো-জর্জিয়ার সঙ্গে কি বাগদান সেরে ফেলেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো?

পর্তুগিজ মহাতারকাকে সমর্থন করতে জর্জিনা হাজির ছিলেন লুঝনিকি স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে। সেখানেই তার হাতে অনেক দামী হিরের আংটি দেখা যায়। যে ম্যাচে রোনালদো রাশিয়া বিশ্বকাপের চতুর্থ গোল করে দলকে নক-আউটের রাস্তায় এগিয়ে দেন। ব্রিটিশ মিডিয়ার দাবি, স্পেনের বিরুদ্ধে রোনালদো হ্যাটট্রিক করেছিলেন যে জার্সিতে, সেটাই পরে এসেছিলেন জর্জিনা।

এপ্রিলেও একই জল্পনা উঠেছিল। জর্জিনা তার সোশ্যাল মিডিয়ার ফলোয়ারদের আভাস দিয়েছিলেন রোনালদো বাগদানের। জর্জিনার হাতে সেখানেও একই আংটি ছিল। রোনালদোর সঙ্গে গাড়িতে ভ্রমণে যাওয়ার সময় ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে চুম্বন ছুড়ে দিয়েছিলেন জর্জিনা। তখনই নজরে পড়েছিল আংটিটি। বলা হচ্ছে, লুঝনিকি স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে সেই আংটিই বুধবার পরে এসেছিলেন তিনি ।

এই ঘটনার মাস খানেক পরেই বিশ্বখ্যাত অলঙ্কার প্রস্তুতকারক সংস্থার একটি আংটির প্রশংসা করেছিলেন জর্জিনা। সেই আংটির সঙ্গেও জর্জিনার আংটির মিল রয়েছে। আংটির দাম? ছয় লাখ পনেরো হাজার পাউন্ড (প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকা)।

কয়েক মাস আগেই তিনিও জর্জিনার মেয়ে আলানা মার্টিনার জন্মের পরে পর্তুগিজ তারকার বান্ধবী স্বীকার করেছিলেন তাদের সম্পর্ক এখন আরো মজবুত হয়েছে। তিনি বলেছিলেন, ‘নিশ্চিতভাবে মেয়ে আমাদের আরো কাছাকাছি নিয়ে এসেছে। আমরা দারুণ খুশি এখন।’

শুধু তাই নয়, জর্জিনা আরো জানিয়েছিলেন কীভাবে মেয়ে হওয়ার পরে রোনালদো পরিবারের জন্য বিশেষ ভোজের ব্যবস্থা করেছিলেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা যখন হাসপাতাল থেকে বাড়িতে এলাম, তখন দেখলাম একটা চমক অপেক্ষা করছে। আমাদের ঘনিষ্ট আত্মীয়-বন্ধুদের সঙ্গে নৈশভোজের ব্যবস্থা করেছিল ও। আমার তখন নিজেকে বিশ্বের সবচেয়ে ভাগ্যবান মেয়ে মনে হচ্ছিল। আমার প্রিয়তমকে খুঁজে পেয়ে গিয়েছি আমি। আমাদের দু’জনের মধ্যে দারুণ সম্পর্ক। যখন ও আমার পাশে থাকে, মনে হয় আমার কাছে সবকিছু আছে।’

বিশ্বকাপের কয়েক দিন আগেও রোনালদোর মা মারিয়া দোলোরেস পর্তুগিজ মহাতারকার বিয়ের আসরে বসার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। একটি পত্রিকাকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে তিনি স্বীকার করেছিলেন, জর্জিনা তার পূত্রবধূ হতে চলেছেন।

রোনালদোর প্রাক্তন বান্ধবীদের সঙ্গে তার মা মারিয়ার সমস্যা দেখা গিয়েছিল। যার মধ্যে আছেন রাশিয়ার মডেল ইরিনা শায়েকও। তবে সাক্ষাৎকারে জর্জিনাকে তিনি যে খুব পছন্দ করেন সেটা জানিয়েছিলেন রোনালদোর মা। সঙ্গে বলেছিলেন জর্জিনা খুব শান্ত স্বভাবের। তিনি বলেছিলেন, ‘জর্জিনা আমার নাতনির মা। এখনো পূত্রবধু হয়নি। তবে ভবিষ্যতে আমার পূত্রবধু হবে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads