• বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
ads
ফুটবলের জনকদের বাধা কলম্বিয়া

উইলিয়ানের ক্রসে দুর্দান্ত প্লেসিং। মেক্সিকোর বিরুদ্ধে প্রথম গোলের পর দুই হাত ছড়িয়ে উড়তেই যেন চাইলেন নেইমার (বাঁয়ে)

ছবি : ফিফা ডটকম

ফুটবল

ফুটবলের জনকদের বাধা কলম্বিয়া

  • স্পোর্টস রিপোর্টার
  • প্রকাশিত ০৩ জুলাই ২০১৮

ফুটবলের জনক ইংল্যান্ড। কারণ ফুটবল খেলার উদ্ভাবক তারা। কিন্তু তাদেরই বিশ্বকাপ ফুটবলের ইতিহাস বেশ নড়বড়ে। শিরোপা জিততে পেরেছে একবার। ১৯৬৬ সালে, তাও ঘরের মাঠে। এরপর প্রতিবারই শক্তিশালী দল ও ফেভারিটদের তকমা নিয়ে বিশ্বকাপে অংশ নিলেও শেষটা হয় হতাশার। কিন্তু এবার চিত্রটা ভিন্ন। এক হ্যারি কেনকে ঘিরেই অনেক স্বপ্ন ও পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছে ইংল্যান্ডের রাশিয়া বিশ্বকাপ। নকআউট পর্বের শুরুতে সেই ইংলিশদের সামনে ল্যাটিন আমেরিকার দেশ কলম্বিয়া। বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় স্পার্তাক স্টেডিয়ামে শুরু হবে কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার ম্যাচটি।

ব্রাজিল বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় ইংল্যান্ড। অন্যদিকে কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলের কাছে হেরে বাদ পড়ে কলম্বিয়া। গ্রুপ পর্বে তিন ম্যাচে দুটিতে জিতে রাউন্ড অব সিক্সটিনে জায়গা করে নিয়েছে ইংল্যান্ড। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বেলজিয়ামের কাছে ১-০ গোলে হেরে যায় তারা। যাকে নিয়ে ইংলিশ সমর্থকদের সব আশা, সেই অধিনায়ক হ্যারি কেন রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে। হ্যাটট্রিকসহ ৫ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকার শীর্ষে আছেন তিনি। এ ম্যাচেও প্রতিপক্ষের মাথাব্যথার কারণ হবেন তিনিই।

এর আগে বিশ্বকাপে একবারই মুখোমুখি হয়েছে ইংল্যান্ড ও কলম্বিয়া। সেবার ল্যাটিন আমেরিকার দলটিকে ২-০ গোলে হারিয়েছিল ইউরোপের দেশটি। এছাড়া সব মিলিয়ে সর্বমোট পাঁচবার মুখোমুখি হয় দু’দল। ইংল্যান্ডের তিন জয়ের বিপরীতে বাকি দুই ম্যাচ ড্র হয়েছে।

কখনোই ফেভারিটের তকমা পায়নি কলম্বিয়া। কিন্তু দলটিতে রয়েছেন বেশ কয়েকজন তারকা ফুটবলার। এরপরও রাশিয়া বিশ্বকাপের শুরুটা ভালো হয়নি দলটির। প্রথম ম্যাচেই এশিয়ার জাপানের কাছে হেরে যায়। কিন্তু এরপর বেশ ভালোভাবে ঘুরে দাঁড়ান হোসে পেকারম্যানের শিষ্যরা। পরের দুই ম্যাচ জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলোতে জায়গা করে নেন তারা।

এক দল হয়ে খেলা কলম্বিয়ার অন্যতম বড় শক্তি হিসেবে কাজ করছে। তরুণদের নিয়ে গড়া ল্যাটিন আমেরিকান দেশ কলম্বিয়ার মূল ভরসা তাদের জমাট রক্ষণ। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে সেনেগালের মতো দলকে পরাজিত করায় আত্মবিশ্বাসের পারদটা বেশ ঊর্ধ্বমুখী ফ্যালকাও-রদ্রিগেজদের। এবার লক্ষ্য সেটা ছাড়িয়ে যাওয়ার।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads