• বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১ কার্তিক ১৪২৪
ads
এক পয়েন্টই বাড়িয়ে দিয়েছে আত্মবিশ্বাস

সাফ ফুটবলে ফাইনালে আজ শেষ হাসি হাসতে চায় লাল-সবুজ জার্সিধারীরা

সংগৃহীত ছবি

ফুটবল

এক পয়েন্টই বাড়িয়ে দিয়েছে আত্মবিশ্বাস

  • কবিরুল ইসলাম
  • প্রকাশিত ১৮ আগস্ট ২০১৮

কবিরুল ইসলাম, ইন্দোনেশিয়া থেকে

জাতীয় পুরুষ ফুটবল দল নিয়ে এখন আর কেউ স্বপ্ন দেখে না। হারতে হারতে ক্লান্ত মামুনুল-জামালদের পারফরম্যান্স এখন আর কারো মন ভরাতে পারে না। ফুটবলারদের এমন দৈনদশা অনেক আগেই শুরু। তবে সমর্থকরা মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন ভুটান বিপর্যয়ের পর থেকেই। হতাশায় নিমজ্জিত ছিলেন ফুটবলাররাও। মুখ লুকিয়ে ছিলেন অনেক দিন। অবশেষে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজেদের কিছুটা হলেও মেলে ধরতে পেরেছেন জামাল ভূঁইয়া-সুফিলরা। চলতি এশিয়ান গেমসে নিজেদের চেয়ে শক্তিশালী থাইল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১-১ গোলে ড্র করায় অনেকটাই আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন জেমি ডে’র শিষ্যরা। সম্ভাবনার দুয়ার খুলেছে প্রথমবারের মতো এশিয়ান গেমসের দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলার। কাতারের বিরুদ্ধে ড্র করলে আর থাইল্যান্ড উজবেকিস্তানের কাছে বড় ব্যবধানে হারলে গ্রুপ রানার্স আপ হয়েই দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে পারবে বাংলাদেশ। সম্ভাবনা থাকবে তৃতীয় হলেও। ছয় গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন রানার্স আপের সঙ্গে সেরা চার তৃতীয় দলও খেলবে। এই সম্ভাবনায় দলের সবাই চনমনে।

টম সেইন্ট ফিটের অধীনে থাকা জাতীয় দল ২০১৬ সালে অক্টোবরে ভুটানিজদের কাছে ৩-১ গোলে হারের পর লাল-সবুজ জার্সিধারীদের প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলেছে দেশবাসী। প্রায় দেড় বছর আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে দূরে থাকা জাতীয় দল চলতি বছর লাওসের বিরুদ্ধে প্রীতি ম্যাচে ড্র করেছিল। ওই ড্রয়ের পর ইংলিশ কোচ অ্যান্ড্রু অর্ড জাতীয় দলের চাকরি ছেড়ে চলে যান। এরপর কয়েক মাস কোচ শূণ্য থাকার পর সুফিল-আশরাফুলদের জন্য ব্রিটিশ জেমি ডে’কে হেড কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। লক্ষ্য এশিয়ান গেমস ও সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ। ব্রিটিশ এ কোচের অধীনে থাকা জাতীয় দল কাতার-ঢাকা-দক্ষিণ আফ্রিকা হয়ে এখন অবস্থান করছে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তায়। চলতি এশিয়ান গেমসে অংশ নিতেই গত ১১ আগস্ট এখানে চলে আসে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। নিজেদের প্রথম ম্যাচে শক্তিশালী উজবেকিস্তানের কাছে ৩-০ গোলে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। থাইল্যান্ডের সঙ্গে ড্র করে নিজেদের হারানো আত্মবিশ্বাস যেন ফিরে পান আশরাফুল-তপুরা।

থাইল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাওয়া ড্রয়ে ফুটবলাররা এখন বেশ ফুরফুরা মেজাজে। ম্যাচটিতে জয়ের সম্ভাবনা ছিল লাল-সবুজদের। ৭৯ মিনিট পর্যন্ত লিড ধরে রাখলেও জয়ের দেখা পাওয়া হয়নি বাংলাদেশের। থাই ফুটবলারদের বিরুদ্ধে জয় না পেলেও হতাশ নন ফুটবলাররা। এখন তাদের পুরো মনোযোগ কাতার ম্যাচের দিকে। দলের সহকারী কোচ মাহবুব হোসেন রক্সি বলেন, ‘আমাদের খেলোয়াড়দের দুদিন অনুশীলনে বাড়তি মনোযোগ দিতে বলেছি। কাতারের ম্যাচের ওপর আমাদের সব কিছু নির্ভর করছে।’ খেলোয়াড়রা সবাই সুস্থ রয়েছে। কোনো কার্ড সমস্যা নেই। একাদশ নিয়ে এখনই কোনো ভাবনা নেই কোচিং স্টাফের। খেলোয়াড়দের বিশ্রাম ও রিকভারি নিয়ে কাজ হচ্ছে মূলত। এই দলে মূল বিষয় হচ্ছে ফাইটিং। ফাহাদ, সুফিল দুর্দান্ত খেলেছেন। মিডফিল্ড ও আক্রমণভাগে তারা অনেক সমন্বয় করছেন। দলের সহকারী কোচ মাহবুব হোসেন রক্সি দলের আবহ সম্পর্কে বলেন, ‘একটি গোল ও পয়েন্ট দলকে আত্মবিশ্বাসী করেছে। খেলোয়াড়রা কাতারের বিপক্ষে জিততে বদ্ধপরিকর।’

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads