• রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮, ৬ কার্তিক ১৪২৫
ads
এবার লেবাননের জালে ৮ গোল

লেবাননের গোলমুখে বাংলাদেশ দলের আক্রমন

ছবি : বাংলাদেশের খবর

ফুটবল

এবার লেবাননের জালে ৮ গোল

  • স্পোর্টস রিপোর্টার
  • প্রকাশিত ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

লেবাননের বিরুদ্ধে অতীতে কখনোই মাঠে নামা হয়নি বাংলাদেশের কিশোরীদের। তাই দলটি সম্পর্কে কোনো ধারণা ছিল না। অপরিচিত এ প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে তাই বেশ সাবধানই ছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ। ধারণা করা হয়েছিল লেবানন প্রতিপক্ষ হিসেবে বেশ শক্তই হবে। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে সফরকারীরা পাত্তাই পায়নি স্বাগতিক বাংলাদেশের সামনে। এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবলের ‘এফ’ গ্রুপের বাছাই পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে কাল লেবাননকে ৮-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলার কিশোরীরা। সাজেদা, তহুরা ও শামসুন্নাহার জুনিয়রের জোড়া গোলে দুর্দান্ত এ জয় পেয়েছেন গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। একটি করে গোল করেছেন আনাই মুগিনি ও রোজিনা। চলতি এ বাছাই পর্বে এটা লাল-সবুজদের টানা দ্বিতীয় জয়। নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাহরাইনকে ১০-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল তারা। টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে বাংলাদেশ। আর তিন ম্যাচ শেষে সমান ৬ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় লেবানন রয়েছে দুই নম্বর স্থানে।

গতকাল কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বেলা সাড়ে ১১টায় শুরু হওয়া এ ম্যাচে স্বাগতিকরা প্রথম থেকেই চেপে ধরেছিল লেবানিজ কিশোরীদের। প্রথমার্ধে বাংলাদেশ এগিয়ে যায় ৫-০ গোলে। তবে স্কোর আরো বড় হতে পারত। কিন্তু বেশ কয়েকটি সুযোগ হাতছাড়া হয় ছোটনের শিষ্যদের। একাধিক সুযোগ নষ্টের পর বাংলাদেশ প্রথম গোলের দেখা পায় ম্যাচের ১৪ মিনিটে। মনিকা চাকমার পাস ধরে এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে দারুণ শটে দলকে এগিয়ে নেন সাজেদা (১-০)। সেই শুরু স্বাগতিকদের গোল উৎসব। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। পাঁচ মিনিট পরই ব্যবধানটা দ্বিগুণ করেন তহুরা খাতুন। স্বাগতিক এ ফরোয়ার্ডের শট ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল পাঠান লেবাননের ডিফেন্ডার সোফিয়ে (২-০)। ম্যাচের ২৩ মিনিটেই স্কোর লাইন ৩-০তে নিয়ে যান তহুরা। আঁখি খাতুনের লম্বা পাস ধরে বক্সে ঢুকে ডান পায়ের দারুণ এক শটে নিশানা ভেদ করেন এ স্ট্রাইকার। তিন মিনিট পর আবারো গোল উৎসবে মাতে স্বাগতিক শিবির। এবার গোলের নায়ক আনাই মুগিনী। ডিফেন্ডার আঁখির পাস থেকে ডান দিক দিয়ে ঢুকে আড়াআড়ি শটে গোল করেন আনাই। আর প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার পাঁচ মিনিট আগে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন সাজেদা (৫-০)। এবারো গোল করতে সহযোগিতা করেছেন আঁখি।

প্রথমার্ধে ৫-০ গোলে এগিয়ে যাওয়া লাল-সবুজ জার্সিধারীরা দ্বিতীয়ার্ধেও নিজেদের আক্রমণাত্মক ফুটবল চালিয়ে যায়। এ অর্ধের শুরুতেই ব্যবধান বাড়িয়ে নেয় স্বাগতিক কিশোরীরা। ৪৮ মিনিটে লেবাননের এক ডিফেন্ডারের কাছ থেকে বল কেড়ে নিয়ে ছোট শামসুন্নাহার জুনিয়র লেবাননের গোলরক্ষকের চোখ ফাঁকি দিয়ে গোল আদায় করে নেন (৬-০)। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে আবারো স্কোর করেন শামসুন্নাহার। সুলতানার নিচু ক্রস ধরে গোল করেন এ ফরোয়ার্ড (৭-০)। ১২ মিনিট পর প্রতিপক্ষের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন বদলি হিসেবে মাঠে নামা রোজিনা আক্তার (৮-০)। শেষদিকে আরো কয়েকবার প্রতিপক্ষের দুর্গে আঘাত হেনেছিল বাংলার কিশোরীরা। কিন্তু আর গোলের দেখা পায়নি তারা। তবে লেবাননের বিরুদ্ধে ৮-০ গোলের দারুণ এ জয়ে বেশ খুশি কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন, ‘আমার প্ল্যান মতোই খেলেছে মেয়েরা। ওরা নিজেদের সেরাটা দিয়ে লেবাননের মতো অপরিচিত একটি দলকে বড় ব্যবধানে হারিয়েছে।’

বাংলাদেশ নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে আগামীকাল একই ভেন্যুতে বেলা সাড়ে ৩টায় মুখোমুখি হবে আরব আমিরাতের।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads