• রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
ads
ইরান ম্যাচ বাতিলের কাহিনী

সংগৃহীত ছবি

ফুটবল

ইরান ম্যাচ বাতিলের কাহিনী

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ৩১ জুলাই ২০১৯

ইরানের মতো বিশ্বকাপ খেলা শক্তিশালী দলের সঙ্গে ম্যাচ হলে যে কত বড় উপকার হতো, তা আর কেউ না বুঝুক বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভালো করেই বোঝে। অথচ ম্যাচ বাতিলের মতো আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল তারা। ‘বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলতে চাই’- এশিয়ার ফুটবলের শীর্ষ দেশ ইরানের এমন আগ্রহ প্রত্যাশারও বাইরে। বাংলাদেশের জন্য ‘মেঘ নাই চাইতেই বৃষ্টি’র মতোই। ইরান ম্যাচটি খেলতে চেয়েছিল কাতারে। যেখানে বিশ্বকাপের আগে ক্যাম্প করবে বাংলাদেশ। কিন্তু বাংলাদেশই সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিল।

কাতারেই হতে পারে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্বের প্রথম ম্যাচটি। দুই দেশের ফুটবল ফেডারেশনের মধ্যে আলোচনার গড়িয়েছিল অনেকদূর। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে হবে, ঠিক তখনই ইরানকে ‘না’ করে দিল বাফুফে। এশিয়ার এক নম্বর দল ইরান। ফিফা র্যাঙ্কিংয়ে ২৩। এমন একটি দেশের বিরুদ্ধে হাজার চেষ্টা করেও ম্যাচে অংশ নেওয়া যেখানে খুবই কঠিন, সেখানে বাংলাদেশই ফিরিয়ে দিয়েছে তাদের প্রস্তাব।

বাংলাদেশ খেলবে না- এমন সিদ্ধান্তের পর সমালোচনার ঝড় ওঠে গণ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এমন সুযোগও ছাড়ে কেউ? বাফুফে থেকে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে- তাদের ম্যাচ খেলার ইচ্ছে থাকলেও সময়টা জুতসই ছিল না। কারণ বাংলাদেশ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম ম্যাচ খেলবে ১০ সেপ্টেম্বর। ইরান ম্যাচটি খেলতে চেয়েছিল ৫ সেপ্টেম্বর। বিশ্বকাপ বাছাই ম্যাচের ঠিক ৫ দিন আগে ম্যাচটি নাকি খেলতে চাননি বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ জেমি ডে। ২ বা ৩ তারিখ হলে হয়তো সম্ভব ছিল। তবে বাংলাদেশ কেন ম্যাচটি খেলতে চাচ্ছে না, তার রহস্য বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে।

আসলে বাংলাদেশ এমন একটি দলের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ বাছাই শুরু করতে চাচ্ছিল না, যে দলের বিরুদ্ধে ম্যাচের পর জামাল ভুঁইয়াদের মনোবল ভেঙে যেতে পারে। চিড় ধরতে পারে আত্মবিশ্বাসে। ইরান খেলতে চায় বাংলাদেশের সঙ্গে- এটাকে প্রথমে ইতিবাচক হিসেবেই নিয়েছিলেন বাংলাদেশের ইংলিশ কোচ জেমি ডে। সময়টা না মেলায় তিনি ‘না’ করে দিতে বলেন বাফুফেকে। জেমি ডে জানান, ‘বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচের অল্প কয়েকদিন আগে ম্যাচটি খেলতে হতো।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads