• শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬
ads
বিগার জলপ্রপাত ও একটি প্রেমকাহিনি

বিগার জলপ্রপাত

ছবি : সংগৃহীত

ভ্রমণ

বিগার জলপ্রপাত ও একটি প্রেমকাহিনি

  • নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৬ মার্চ ২০১৯

যেসব ভ্রমণপ্রেমী পাহাড় পছন্দ করেন তাদের প্রধান আকর্ষণ থাকে ঝর্ণা। পৃথিবীর নানা জায়গার ঝর্ণার সৌন্দর্য দেখাই তাদের কাজ। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে তাদের যদি আপনি জিজ্ঞাসা করেন, পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর জলপ্রপাত কোনটি?

এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া তার জন্য বেশ কঠিন, কারণ সব জলপ্রপাতের সৌন্দর্য একরকম নয়। প্রতিটি ঝর্ণা তার নিজস্ব সৌন্দর্য ও কাহিনি বহন করে। আর দেখার বিষয়টা তো আছেই।

তবে হ্যাঁ, যদি প্রশ্ন করা হয় সবচেয়ে ভিন্নরকমের দেখতে জলপ্রপাত কোনটি?

এক্ষেত্রে সবার আগে যে নামটি সামনে চলে আসবে, তা হলো রোমানিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমে কারাস-সেভেরিন প্রদেশে (বোজোভিসি প্রশাসনিক অঞ্চল) মিনি নদীর উপরে অ্যানিনা পর্বতে অবস্থিত বিগার নামের জলপ্রপাত।

এই জলপ্রপাতটি এতটাই সুন্দর যে যদি বিশ্বের সব জলপ্রপাতের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করা হয় সেই তালিকার উপরের দিকেই থাকবে বিগারের নাম। গত কয়েক বছরে জলপ্রপাতটি আন্তর্জাতিক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। ২০১৩ সালের ওয়ার্ল্ড জিওগ্রাফি পত্রিকা বিশ্বের আটটি সবচেয়ে আশ্চর্যজনক জলপ্রপাত রেটিং প্রকাশ করেছে, যেখানে বিগার জলপ্রপাত প্রথম স্থানে ছিল।

স্থানীয় বাসিন্দারা একে আদর করে ডাকে মিনিস ক্যানিয়নের মিরাকল নামে। এটি একটি সুরক্ষিত জলপ্রপাত। ইজভুরুল বিগার ইংরেজিতে বিগার স্প্রিং, তবে বিগার ওয়াটারফল নামেই বেশি পরিচিত। এই জলপ্রপাতটি মাশরুমের মতো অস্বাভাবিক আকৃতির জন্য বিখ্যাত।

জলপ্রপাতটি মিনি নামের ছোট একটি নদী থেকে উৎপত্তি হয়েছে। এই নদীর পানি আট মিটার উপর থেকে নিচে মস এবং শৈবালে ঢাকা মাশরুম আকৃতির পাথরের উপরে এসে পরে। এখান থেকে পানি গোলাকার পাথরের গা বেয়ে অসংখ্য ধারায় নিচে নেমে আসে যা দেখতে অসাধারণ লাগে।

বিগার জলপ্রপাতের ইতিহাস : এই জলপ্রপাতকে ঘিরে একটি দুঃখের কাহিনি আছে। এই অঞ্চলে একটি কৃষক পরিবার বসবাস করত। তারা খুব অসুখী ছিল, কারণ তাদের কোনো সন্তান ছিল না। তারা হতাশ হয়ে এক জিপসি ডাইনির কাছে সাহায্য চায়। সেই ডাইনি কৃষকের স্ত্রীকে এই ঝর্ণার পানি পান করতে বলে, আর এতে করে সে একটি সুস্থ স্বাস্থ্যবান শিশু জন্ম দিতে পারবে।

কিন্তু একটি দুঃখজনক শর্ত ছিল, তা হলো- যদি কোনো মেয়ে শিশুর জন্ম হয় তবে সে কখনো প্রেমে পড়বে না, কারণ প্রেমে পড়লে তার মৃত্যু হবে। মহিলা পানি পান করে এবং সুন্দর একটি মেয়েকে জন্ম দেয়।

কিন্তু মেয়েটি বিগার নামের এক যুবকের প্রেমে পড়ে, তখন মেয়েটির বাবা মা এই মেয়েকে মন্দ ভাগ্য থেকে রক্ষা করার চেষ্টা করেছিল, যার কারণে মেয়েটির বাবা মেয়েটিকে গুহার মধ্যে আটকে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

বন্দি অবস্থায় মেয়েটি গুহার ভেতরে বসে কাঁদছিল। সেই ডাইনি মেয়েটির কান্না শুনতে পেল। ডাইনি মেয়েটির কাছে এসে বলেছিল যে সে তাকে গুহা থেকে মুক্ত করতে পারবে না, তবে সে তাকে তার প্রিয়জনের সাথে পুনরায় একত্রিত করতে সাহায্য করবে। এভাবে তাদের কষ্টের অবসান ঘটবে।

তখন ডাইনি মেয়েটির চুল চারদিকে ছড়িয়ে দিল, আর যার ওপর মেয়েটির অশ্রু ঝরে পড়ে এই জলপ্রপাতের সৃষ্টি করল। বিগারকে বাতাসে পরিণত করে ঝর্ণার পানির সঙ্গে মিশিয়ে দিল এবং দুজন একসঙ্গে মিলেমিশে একাকার হয়ে গেল। এভাবেই তারা চিরতরে একত্রিত হয়ে রইল। আর এভাবেই তৈরি হয়েছে বিগার জলপ্রপাত। 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads