• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৭
সবুজ পাতায় দুলছে স্বপ্ন

ছবি: বাংলাদেশের খবর

কৃষি অর্থনীতি

সবুজ পাতায় দুলছে স্বপ্ন

  • অচিন্ত্য মজুমদার, ভোলা
  • প্রকাশিত ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১

ভোলায় আমন ধান চাষে কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছে কৃষকরা। চাষাবাদ আর চারা রোপণে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। জেলার বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে রোপা আমন আবাদের ধুম চলছে। এ বছর পর্যাপ্ত বৃষ্টির পাশাপাশি আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় আমনের সবুজ মাঠে সোনালি স্বপ্ন দেখছেন কৃষকরা।

জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, এখন আমন চাষের ভরা মৌসুম চলছে। শ্রাবণের মাঝামাঝি সময় এসে প্রত্যাশিত বৃষ্টি পেয়ে কৃষক জমিতে চাষ আর চারা রোপণে ব্যস্ত। কেউ ধান গাছের আগাছা পরিষ্কার করছেন। আবার কেউ সার ও কীটনাশক প্রয়োগ করছেন। বিস্তীর্ণ ক্ষেতের সবুজ পাতায় বাতাসে দুলছে কৃষকের স্বপ্ন। বর্তমানে ধান গাছের পরিচর্যায় যেন দম ফেলার সময় নেই তাদের। রোদ, ঝড়-বৃষ্টিতে একমনে কাজ করেন তারা। কাজের ফাঁকে মাঠের ক্ষেতে বসেই খাচ্ছেন সকালে নাস্তা আর দুপুরের খাবার।

কৃষি বিভাগের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, এ বছর জেলার সাত উপজেলায় এক লাখ ৭৯ হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে চার লাখ ৮৯ হাজার ৯৩২ টন আমন চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ভোলায় এ পর্যন্ত প্রায় ৮০ শতাংশ জমিতে রোপা আমন চাষ হয়েছে বলে জানিয়েছে কৃষি বিভাগ। শ্রাবন থেকে শুরু হলেও ভাদ্র মাস জুড়ে চলবে চারা রোপণ কাজ। আবার কার্তিক মাসের শুরু থেকে অগ্রহায়ণ মাসের প্রথম সপ্তাহর মধ্যে আমন ধানা কাটা মাড়া শেষ হবে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আমনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গোলায় উঠবে সোনালি ফসল এমনটাই প্রত্যাশা কৃষকদের।

সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন জানান, আবহাওয়া অনুকূলে থাকালে চলতি মৌসূমে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হওয়ার পাশাপাশি কৃষকরা আমন ধানে লাভবান হবে। এছাড়া কৃষকদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে সরকারের পক্ষ থেকে এ বছরও ২৬ টাকা কেজি হারে প্রান্তিক কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনা হবে বলে জানান তিনি।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads