• বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জৈষ্ঠ ১৪২৮

পণ্যবাজার

সবজির দামে নাভিশ্বাস

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

দফায় দফায় বাড়ছে সবজির দাম। সঙ্গে সব ধরনের মাছ, মুরগি ও ডিমের দামও চড়া। কাঁচামরিচের ঝালও বেড়েছে বেশ। ফলে বাজারে গিয়ে ক্রেতার উঠছে নাভিশ্বাস। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

বাজারে গিয়ে দেখা যায়, বাজারে সবচেয়ে বেশি দাম বেড়েছে কাঁচামরিচের। কেজিপ্রতি পণ্যটির দাম বেড়েছে ৬০ টাকা। বেশিরভাগ সবজির দাম কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা বেড়েছে। এসব বাজারে প্রতি কেজি (গোল) বেগুন ৮০ টাকা, লম্বা বেগুন ৫০ থেকে ৪০ টাকা, পাতাকপি ও ফুলকপি প্রতি পিস ৫০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, ইন্ডিয়ান টমেটো ১০০ টাকা, সিম ১৬০ টাকা, বরবটি ৮০ টাকা। চাল কুমড়া পিস ৪০ টাকা, প্রতি পিস লাউ আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়, মিষ্টি কুমড়ার কেজি ৪০ টাকা, চিচিঙ্গা ৪০ টাকা, পটোল ৪০ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা, লতি ৬০ থেকে ৮০ টাকা ও কাকরোল ৬০ টাকা।

পাইকারি সবজি বিক্রেতারা বলছেন, সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে সবজির সরবরাহ সাধারণত কম থাকে। এ কারণে সবজির দাম একটু বাড়তি থাকে। তাছাড়া এবার বন্যায় অনেক সবজির ক্ষেত নষ্ট হয়ে যাওয়ায় বাজারে সরবরাহ কম।

মিরপুর ১১ নম্বর বাজারের খুচরা সবজি বিক্রেতা শহীদ পাটোয়ারী বলেন, বাজারে চাহিদা অনুযায়ী সবজির সরবরাহ কম। সরবরাহ বাড়লে সবজির দাম কমবে। বাজারে সবজির দাম আজ একরকম থাকে, তো পরের দিন আরেক রকম। সবজির দাম কখন কি থাকবে, কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারেন না।

বাজারে আলু বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা কেজি। প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায়। বাজারে বেড়েছে কাঁচামরিচের দাম। কেজিতে দাম বেড়েছে ৬০ টাকা।

প্রতি কেজি কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকায়। গতসপ্তাহে বিক্রি হয়েছে ৮০ টাকা কেজি। কাঁচা কলার হালি বিক্রি হচ্ছে ২৫ থেকে ৩০ টাকায়। পেঁপে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা। শসা বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৬০ টাকায়। লেবুর হালি বিক্রি হচ্ছে ১৫ টাকায়।

এছাড়া শুকনা মরিচ প্রতি কেজি ১৫০ থেকে ২৫০ টাকা, রসুনের কেজি ৮০ থেকে ১৩০ টাকা, আদা বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা। হলুদ ১৬০ টাকা থেকে ২২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ইন্ডিয়ান ডাল কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকায়। দেশি ডাল প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকায়।

এসব বাজারে আগের দামে কেজিপ্রতি চিনি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়। এছাড়া প্যাকেট চিনি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮৫ টাকায়। বাজারে গতসপ্তাহের দামে বিক্রি হচ্ছে খুচরা আটার। প্রতি কেজি আটা বিক্রি হচ্ছে ৩৩ থেকে ৩৫ টাকায়। 

আবারো বেড়েছে সোনালি (কক) মুরগির দাম। ১০ টাকা বেড়ে কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ২৯০ টাকায়। ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা। লেয়ার মুরগি প্রতি কেজি ২৪০ টাকা। 

১১ নম্বর বাজারের মুরগি বিক্রেতা মো. রুবেল বলেন, খামারিরা জানিয়েছে বন্যায় অনেক খামার ভেসে গেছে। ফলে বাজারে মুরগির সরবরাহ কমেছে। আবার লকডাউন উঠে যাওয়ায় এখন সবকিছু খুলে গেছে। হোটেল-রেস্তোরাঁয় বিক্রি বেড়েছে। এতে বাজারে মুরগির চাহিদা বেড়েছে। সবকিছু মিলে মুরগির দাম বেড়ে গেছে।

মুরগির সঙ্গে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে ডিম। ফার্মের মুরগির এক ডজন ডিম বিক্রি হচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা। আর মুদি দোকানে এক পিস ডিম বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১১ টাকা। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিমের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে চলতি মাসের শুরুতে এক ডজন ডিম ৯০ থেকে ৯৫ টাকায় পাওয়া যাচ্ছিল।

মাছ বাজারে গিয়ে দেখা যায়, রুই মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৮০ থেকে ৩৮০ টাকা। মৃগেল মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ২৮০ টাকা। তেলাপিয়া মাছ বিক্রি হচ্ছে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা কেজি। পাবদা মাছের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ থেকে ৫০০ টাকা। পাঙাশ মাছ বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৬০ টাকা।

আগের মতো বাজারে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে ইলিশ। বড় (এক কেজির ওপরে) ইলিশের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১১০০ থেকে ১৩০০ টাকা। মাঝারি আকারের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা কেজি। আর ছোটগুলো ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। সপ্তাহের ব্যবধানে ইলিশের অপরিবর্তিত রয়েছে।

কারওয়ান বাজারে বাজার করতে আসা ইব্রাহিম হোসেন বলেন, বাজারে সবকিছু দাম ব্যাপক চড়া। ৫০ টাকার নিচে সবজি পাওয়া যাচ্ছে না। চাল, ডাল, তেল, চিনি তো অনেক আগে থেকেই চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। জিনিসপত্রের এমন দাম আমাদের মতো স্বল্প আয়ের মানুষগুলো বেশি বিপদে রয়েছে।

তিনি বলেন, চাল, তেল, চিনির দাম কিছুতেই স্বাভাবিক না। এসব নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব যাদের তারা ঠিকমতো দায়িত্ব পালন করছে না। এই যে সরকার থেকে চিনির দাম বেঁধে দেওয়া হলো, দুই সপ্তাহের বেশি হয়ে গেলেও এখনো বেঁধে দেওয়া দামে চিনি পাওয়া যাচ্ছে না। কিন্তু আজ পর্যন্ত শুনলাম না চিনির দাম নিয়ন্ত্রণে কোনো বাজারে অভিযান চালানো হয়েছে।

রামপুরার বাসিন্দা মো. মামুন বলেন, মাছ, মাংস, চাল, তেলের দাম অনেক আগে থেকেই বাড়তি। তবে ব্রয়লার মুরগি কিছুটা কম দামে পাওয়া যাচ্ছিল। কিন্তু গত দুই সপ্তাহে ব্রয়লার মুরগির দামও বেড়ে গেছে। সবজির দামও অনেক। সবকিছু মিলে সাধারণ মানুষ বেশ কষ্টে আছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads