• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সাধারন মানুষ ও ভোটারদের কাছে লিফলেট বিতরণ করছেন মৌসুমী সরকার।

সারা দেশ

যুব নেত্রী মৌসুমী সরকার নৌকার মাঝি হতে চান

  • শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৫ নভেম্বর ২০২১

গাজীপুরের শ্রীপুরে আসন্ন  ইউপি নির্বাচন ঘিরে মানুষের নানা জল্পনা কল্পনা চলছে। তবে সব ছাপিয়ে একজন নারী সরাসরি চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে এরই মধ্যে সবার নজর কাড়েন। সবার নজর বরমী ইউনিয়নের একমাত্র নারী চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে নৌকার মাঝি হতে চান মৌসুমী সরকার।

যখন রাজনীতির মাঠে জামাত বিএনপির তাণ্ডব তখনো ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের নিয়ে আন্দোলনের সম্মুখপানে ছিলেন মৌসুমী সরকার। ২০০৩ সালের দিকে সক্রিয় ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন তিনি। ছাত্রলীগ নেতা কর্মীদের চাঙা রাখতে রাজনীতির মাঠ দাপিয়ে বেড়িয়েছেন আজকের যুব মহিলালীগ নেত্রী মৌসুমী সরকার। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে শ্রীপুর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বরমী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে চান তিনি। জনগনের সেবা করার প্রত্যয় নিয়ে গেল মহামারি করোনাকালে মানুষের পাশে ছিলেন নির্ভয়ে। রাত বিরাতে খাদ্য ওষুধসহ আক্রান্তদের পাশে দাঁড়িয়েছেন সন্মুখ সারি যোদ্ধা হিসাবে। সাধ্যমত নিজস্ব অর্থ ব্যয়ে মানুষকে সহযোগীতা করেন তিনি। বিভিন্ন সময় প্রাকৃতিক দুর্যোগে সামনের সারিতে থেকে মানুষের সেবা করেন মৌসুমি সরকার। শীতে কম্বল বিতরণ,অসহায়দের গৃহ নির্মান গরীব নারীদের ঘরে চাল কিনে দেওয়াসহ নানা মহৎকাজে সক্রিয় সব সময়। 

আজ বৃহস্পতিবার সকালে বরমী ইউনিয়নে সাধারন মানুষের কাছে নিজের প্রার্থীতার খবর পৌঁছে দিতে নামেন গণসংযোগ আর লিফলেট বিতরণে। এ সময় বর্তমান আ.লীগ সরকারের নানা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের নানা দিক মানুষের কাছে তুলে ধরেন। আগামীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কি কি উন্নয়ন ভিশন তা নিয়েও সাধারন মানুষকে অবহিত করেন তিনি।


স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বরমী পশ্চিম পাড়ার আবদুল হামিদ সরকারের মেয়ে হালিমা খাতুন মৌসুমী। বঙ্গবন্ধুর একনিষ্ঠ এক আদর্শ সৈনিক। বহুদিন ধরেই মানুষের নানা অসুবিধার সমাধানে তিনি কাজ করছেন। এক সময় সাধারন মানুষের উদ্বুদ্ধকরণে জনসেবার জন্য জনপ্রতিনিধি হওয়ার ইচ্ছা পোষন করেন। মানুষের ধারনা নৌকা প্রতীক পেলে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন মৌসুমী সরকার। যে কোনো সময় যে কোনো সমস্যা নিয়ে সাধারন মানুষ তার কাছে গেলে তিনি আন্তরিকতার সঙ্গে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন মানুষের জন্য। তিনি দীর্ঘদিন ধরে সততা নিষ্ঠার সঙ্গে শ্রীপুর উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। বিভিন্ন মানবিক কাজকর্মে এরই মধ্যে তিনি প্রশংসিত হয়েছেন সাধারন মানুষ ও ভোটার মহলে। বিশেষ করে নারী ভোটাররা তার ভক্ত বেশি। আশা করি নৌকার মনোনয়ন পাবেন তিনি।

তারা জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে বরমী ইউনিয়নে মানুষের কাছে গিয়ে সরকারের নানা উন্নয়নের কথা বলেন। আগামী নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেলে সবার কাছে ভোট চান। তিনি বলেন নৌকা হলো উন্নয়নের প্রতীক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যাকেই নৌকার প্রার্থী মনোনীত করবেন তার পক্ষে সবাইকে নিয়ে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। এ সময় তিনি গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করেন বিভিন্ন এলাকায়।


উপজেলা আ.লীগ সূত্রে জানাযায় বরমীসহ ৮টি ইউনিয়নে নৌকার মনোনয় চেয়ে ফরম কিনেন ৮৯ জন প্রার্থী। বরমীতে একজন নারী প্রাথীসহ ১৪ জন মনোনয়ন ফরম কিনেন। এ ১৪ জনের বাইরেও আরো প্রার্থী রয়েছে। তবে সারা উপজেলায় সরাসরি চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে একজন নারী প্রার্থী হয়েছেন মৌসুমী সরকার। উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি দায়িত্ব পালন করছেন মৌসুমী সরকার।


নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী মৌসুমী সরকার জানান, মানুষের কাছে গিয়ে সেবা করার জন্যই জনপ্রতিনিধি হিসাবে নিজেকে প্রস্তুত করছি। মহামারি করোনাকালে মানুষের কাছে যাওয়াতে মানুষ আমার প্রতি আস্থা রাখছে। আশা করি মানুষের মনের মত সেবাটা নিশ্চিত করতে পারো। যদি নৌকার মনোনয়ন পাই তাহলে সবাইকে নিয়ে একটি অবাদ সুষ্ঠ নির্বাচনের জন্য আন্তরিক ভাবে কাজ করবো।

তিনি বলেন, আশা করছি নৌকার মনোনীত প্রার্থী করা হবে আমাকে। দীর্ঘদিন ধরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতে গড়া যুব মহিলা লীগের দায়িত্ব পালন করছি সততা নিষ্ঠার সাথে। আমি এ সততার পুরস্কার পাবো।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads