• রবিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ২ মাঘ ১৪২৮

সারা দেশ

ধর্ষণ মামলায় শিক্ষক বহিস্কার, স্কুলে পাঠদান ব্যাহত

  • সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

জামালপুরের সরিষাবাড়ীর পিংনা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত হয়ে বহিস্কার রয়েছেন বিদ্যালয় থেকে। এমন গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়ে শিক্ষক ঘাটতি থাকায় অন্য বিষয়ের শিক্ষক দিয়ে একরকম জোড়াতালি দিয়েই চলছে পাঠদান। অপরদিকে দীর্ঘ সময় পার হয়ে গেলেও মামলা শেষ না হওয়ায় বাদী ভিক্টিমকে (বর্তমানে) সাবালক মেয়েকে নিয়ে পড়েছেন নানা জটিলতায়।

জানা যায়, পিংনা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজী শিক্ষক মোঃ গোলাম মাছুদ ২০০৭ সালে উক্ত বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক করে এবং ২০১৫ সালে বিদ্যালয়ের বেতন আদায়ের রশিদ জালিয়াতীর মাধ্যেমে অর্থ কেলাংকারীতে জড়িয়ে পড়ে। সে সময় আর কোন আপরাধ ও প্রতিষ্ঠানের অর্থসংক্রান্ত সকল কার্যক্রমের জড়িত হবেনা মর্মে তাকে সাধারণ ক্ষমা করে প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ।

কিন্তু আবারো ২০১৭ সালে গোলাম মাছুদ উক্ত বিদ্যালয়েরই ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। ঐ ছাত্রীকে বিবাহসহ বিভিন্ন প্রলোভনে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে সেই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ১৮-০৯-২০১৭ তারিখে সরিষাবাড়ী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০(সংশোধনী/০৩)এর ৯(১) ধারায় ২২নং মামলা দায়ের করেন। যার ফলে ২-১১-২০১৭ তারিখে গোলাম মাছুদকে বিদ্যালয়ের তার দায়ীত্ব থেকে সাময়ীক বহিস্কার করে। পুলিশ তাকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করলেও কিছুদিন পরই জামীনে বেরিয়ে আসে মাছুদ। দীর্ঘ প্রায় চার বছর পেরিয়ে গেলেও মামলার কোন সুরহা না হওয়ায় খালিই রয়েছে পদটি।

এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক মোঃ মোজাম্মেল হক জানান, মামলা নিঃস্পত্তি না হওয়ায় আরবিট্রেশন বোর্ড হতে কোন চুডান্ত সিদ্ধান্ত আসে নাই। যার ফলে উক্ত পদে কোন শিক্ষকের জন্য আবেদন করতে পারছি না। এক জন মাত্র ইংরেজী শিক্ষক থাকায় একেক সময় একেক জনকে দিয়ে ক্লাস চালিয়ে যাচ্ছি।

এ বিষয়ে মামলার বাদী বলেন, বর্তমানে আমার মেয়ের বয়স প্রায় ১৯ বছর। দীর্ঘসময়ে মামলা শেষ না হওয়ায় আমি মেয়েকে নিয়ে নানা সমস্যায় নানা দুঃচিন্তায় ভুগছি। এখন এ সাবালক মেয়েকে নিয়ে কোর্ট কাচারিতে যাওয়াও সমস্যা।

এমতাবস্থায় মামলাটি দ্রুত নিঃস্পত্তির দাবি জানিয়েছেন বাদী ও স্কুল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads