• শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
নাটোরে সাড়ে ছয় টন সয়াবিন তেল উদ্ধার

ফাইল ছবি

সারা দেশ

নাটোরে সাড়ে ছয় টন সয়াবিন তেল উদ্ধার

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ১৪ মে ২০২২

নাটোর জেলার বড়াইগ্রামে পাঁচটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের গুদাম থেকে সাড়ে ছয় টনের অধিক ভোজ্য সয়াবিন তেল উদ্ধার করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ও র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান। অবৈধভাবে তেল মজুত রেখে বেশি দামে বিক্রির অভিযোগে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকদের ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো হলো, বড়াউগ্রাম উপজেলার জোনাইল বাজারস্থ মোল্লা ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, রুপম স্টোর, মিতা স্টোর, বিল্লাল স্টোর ও মেসার্স দেবাশীষ স্টোর।
র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ হোসেন জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল বাজারে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। অভিযানকালে পাঁচটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের গুদামের সন্ধান পাওয়া যায় । অভিযানকালে মোল্লা ডিপার্টমেন্টাল স্টোরের গুদাম থেকে বোতলজাত ৪,০০ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার শেষে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা, রুপম স্টোরের গুদাম থেকে বোতলজাত ১,০০০ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার শেষে ১ লাখ টাকা জরিমানা, মিতা স্টোরের গুদাম থেকে বোতলজাত ৬,০০ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার শেষে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা, বিল্লাল স্টোরের গুদাম থেকে বোতলজাত  ১,০০ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার শেষে ২০ হাজার টাকা জরিমানা এবং মেসার্স দেবাশীষ স্টোরের গুদাম থেকে বোতলজাত ৪ হাজার ৫০০ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার শেষে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পরে জব্দকৃত সয়াবিন তেল সরকার নির্ধারিত পূর্বের মূল্যে স্থানীয় ব্যক্তিদের মধ্যে বিক্রি করা হয়।   

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ মেহেদী হাসান তানভীর জানান, দ্রব্যমূল্যের তালিকা প্রদর্শন না করা, অবৈধভাবে তেল মজুত ও বেশি দামে তেল বিক্রির দায়ে অভিযুক্ত দোকানদারগণকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে জরিমানা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads