• সোমবার, ৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯
বানভাসি মানুষের কল্যাণে আখাউড়ায় 'বিশেষ কাফেলা'

প্রতিনিধির পাঠানো ছবি

সারা দেশ

বানভাসি মানুষের কল্যাণে আখাউড়ায় 'বিশেষ কাফেলা'

  • আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২১ জুন ২০২২

রাস্তায় বেশ কয়েকজন তরুণ যুবক। তাদের মাথায় টুপি, পড়নে পাঞ্জাবী। মাথে আছে একটি ব্যাটারিচালিত অটো রিকশা ও মাইক। মানুষ মানুষের জন্য, মানবিক সহায়তায় এগিয়ে আসুন । নানা ছন্দে হৃদয় বিদায়ক শ্লোগানে তারা চলছে শহরের অলিগলি। এমন এক দৃশ্য দেখা গেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌর শহর এলাকায়। মঙ্গলবার সকাল থেকে বিকাল পযর্ন্ত স্বেচ্ছা সেবী নামে বিশেষ কাফেলা বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজনের কাছ থেকে টাকা তুলছেন। সিলেট বিভাগে স্মরণ কালের ভয়াবহ বন্যা হওয়ায় বিপর্যস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে ওই কাফেরার সদস্যরা রাস্তায় রাস্তায় পথচারি, ব্যবসায়ী, চাকুরিজীবিসহ নানা শ্রেণির লোকজনের কাছে হাত বাড়িয়েছেন। লোকজনও তাদের এই আহবানে ভালো সারা দিয়েছেন। বানভাসি এসব মানুষের পাশে দাঁড়িনোর জন্য এলাকায় বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে এ কাফেল।

ওই কাফেলার ডাকে সারা দিয়ে ১০ টাকা, ২০,থেকে শুরু করে ৫০ হাজার, ১লাখ টাকা ও দান করেছেন। সংগঠনের লোকজনরা জানায়, ওই টাকা দিয়ে শুকনো খাবার, ঔষধপত্র, বাচ্চাদের দুধ, বিশুদ্ধ পানি, মোমবাতি, গ্যাস লাইট কেনা হবে। পাশাপাশি দেওয়া হবে নগদ টাকাও। মঙ্গলবার রাতে ওইসব সামগ্রী নিয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে।

মো: আলাউদ্দিন বলেন, আমাদের এলাকা থেকে বহুদুর সিলেট। বেশ কয়েক দিন ধরে বন্যায় তারা বিপযর্¯Í হয়ে মানবেতর জীবন ঝাপন করছেন। ইচ্ছা থাকা সত্বেও তাদেরকে কিছুই করতে পারছি না। এই কাফেলার মাধ্যমে সুযোগ তৈরী হওয়ায় মানুষের কল্যাণে সহযোগির জন্য এগিয়ে আসা। সহযোগিতা করতে পেরে খুবই ভালো লাগছে।

মো: খোরশেদ আলম বলেন, বিপযর্স্ত সিলেট বাসীর জন্য মানবিক সাহায্য চাওয়ায় সাধ্যনুযায়ী কিছু দিতে পেরে খুবই ভালো লাগছে।

বিশেষ কাফেলার প্রধান সমন্বয়ক আলহাজ্ব বিল্লাল হোসেন বলেন, এই কাফেলার সদস্যরা সামর্থনুযয়ী প্রত্যেকে নগদ টাকা দিয়েছে। তাছাড়া মাইক যোগে শহরের অলিগলি বের হওয়ায় পথচারি, ব্যবসায়ী, চাকুরিজীবিসহ নানা শ্রেণির লোকজন বানভাসি লোকজনের সাহায্যে ভালো সারা দিয়েছে। তিনি বলেন এ পযর্ন্ত লোকজন প্রায় নগদ ৩ লক্ষ টাকা দান করেছেন। ওইসব টাকায় মালামাল ক্রয় করে রাতের মধ্যে সিলেট যাওয়া হবে। ইতিমধ্যে মালামাল কেনা হয়েছে। এখন চলছে প্যাকেটের কাজ।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads