• রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯
আইপিএলের কারণে সমস্যায় পড়বে পাকিস্তানী ক্রিকেটাররা: আফ্রিদি

সংগৃহীত ছবি

ক্রিকেট

আইপিএলের কারণে সমস্যায় পড়বে পাকিস্তানী ক্রিকেটাররা: আফ্রিদি

  • অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত ২২ জুন ২০২২

বর্তমান বিশ্ব ক্রিকেটে ভারতীয় আধিপত্য সবচেয়ে বেশি বলে মনে করেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও ক্রিকেটার শহিদ আফ্রিদি।

তিনি জানান, ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বাজার ভারতেই। তাই তারা যা বলবে, সেটাই হবে।

ক্রিকেট বিশ্বে ভারতীয় বোর্ড (বিসিসিআই) মহাশক্তিধর। ২০২৪ সাল থেকে প্রায় আড়াই মাস ধরে চলবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রতিটি মৌসুম। এজন্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কাছ থেকে বিশেষ ফাঁকা উইন্ডোও পাবে বিসিসিআই।

আড়াই মাস সময় নিয়ে আইপিএল হলে, বিপদে পড়বে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। কারন আইপিএল চলাকালীন কোন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হবে না। তখন ক্রিকেট থেকে দূরেই থাকতে হবে খেলোয়াড়দের। কারন আইপিএলে খেলার সুযোগ পান না পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা।

আফ্রিদির মতে, আইপিএল আড়াই মাস হলে, মহা সমস্যায় পড়বে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। ভারতীয় বোর্ড এতটাই শক্তিশালী, আইপিএলের জন্য আলাদা সময় বের করতে বাধ্য হচ্ছে আইসিসি। এতে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারবে না।

স্থানীয় টিভি চ্যানেল সামা টিভিকে আফ্রিদি বলেন, ‘ক্রিকেটে এখন বাজার এবং অর্থনীতিই আসল বিষয়। ভারতই যে এখন ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বাজার, এটা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। তারা যা বলবে সেটাই হবে।’

গত সপ্তাহে আগের সব রেকর্ড ভেঙে সব মিলিয়ে আইপিএলের সম্প্রচার স্বত্ব বিক্রি হয়েছে ৪৪ হাজার ৭৫ কোটি রুপিতে। টেলিভিশনে ম্যাচ পিছু মূল্য দাঁড়াচ্ছে ৫৭ দশমিক ৫ কোটি রুপি। ফলে আইপিএলে প্রতিটি ম্যাচের সম্প্রচার মূল্য দাড়াঁবে ১০৫ কোটি রুপি করে।

আইপিএলের প্রথম আসরে ডেকান চার্জাসের হয়ে খেলেছিলেন আফ্রিদি। ঐ আসরে পাকিস্তানের শোয়েব মালিক, কামরান আকমল ও শোয়েব মালিকও খেলেছেন। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে ১০টি আইপিএলের ম্যাচ খেলেন আফ্রিদি। ২০০৮ সালে মুম্বাইয়ে জঙ্গি হামলার পর পাকিস্তানীদের আইপিএলে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads