• বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮
শুভ জন্মদিন রোজিনা

সংগৃহীত ছবি

ঢালিউড

শুভ জন্মদিন রোজিনা

  • বিনোদন প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত ২০ এপ্রিল ২০২১

চিত্রনায়িকা রোজিনা চলচ্চিত্রে আসার আগে ঢাকায় মঞ্চনাটক করতেন। তখন তিনি বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে কাজ করেন। ১৯৭৬ সালে ‘জানোয়ার’ চলচ্চিত্রে সহ-নায়িকা হিসেবে সিনেজগতে যাত্রা শুরু করেন। পরের বছর একক নায়িকা হিসেবে কাজ করার সুযোগ পান এফ কবির পরিচালিত ‘রাজমহল’ চলচ্চিত্রে। আজকের এই দিনে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দে জন্মগ্রহণ করেন রোজিনা। শুভ জন্মদিন রোজিনা।

জন্মদিনে রোজিনা বলেন, ‘সবাই দোয়া করবেন পৃথিবীর মানুষ যেন বেঁচে যায়। আজ এই মুহূর্তে সংকটে রয়েছে মানবজীবন। এবার অনেক কাছের মানুষকে হারিয়েছি। এই শোক সহ্য করার শক্তি আমাদের দিন। কবরী আপাকেও হারালাম। আস্তে আস্তে আমরা অভিভাবকশূন্য হয়ে যাচ্ছি। ওয়াসিম ভাই চলে গেলেন। মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হচ্ছে। তাই এবারের জন্মদিনের ভালো লাগার কোনো অনভূতি নেই। অনুভূতিজুড়ে শুধুই করোনা। যদি বেঁচে থাকি, ভবিষ্যতে জন্মদিন নিয়ে ভাবা যাবে। যে যেখানেই থাকুন, ভালো থাকুন। সরকারের দেওয়া বিধিনিষেধ মেনে চলুন। আমরা আবারো স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাব, ইনশাআল্লাহ।’

রোজিনার অভিনয়দক্ষতা ও গ্ল্যামার দর্শককে দীর্ঘদিন মন্ত্রমুগ্ধ করে রেখেছিল। সিনেমাপ্রেমী মানুষের মনে তিনি ঠাঁই করে নিয়েছিলেন প্রথম শ্রেণির নায়িকা হিসেবে। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ওপার বাংলায়ও কিছু সিনেমায় কাজ করেছেন রোজিনা।

আমজাদ হোসেন পরিচালিত ‘কসাই’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য রোজিনা সর্বপ্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। এরপর মতিন রহমান পরিচালিত ‘জীবনধারা’ ও কবীর আনোয়ার পরিচালিত ‘দিনকাল’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। কো-প্রোডাকশনের ছবি (পাকিস্তানের সঙ্গে) ‘হাম সে হায় জামানা’তে অভিনয়ের জন্য ১৯৮৬ সালে তিনি পাকিস্তান থেকে নিগার অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন। এ ছবিতে রোজিনার বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় নায়ক নাদিম।

এ ছাড়া রোজিনা নেপাল, শ্রীলঙ্কার সঙ্গেও কো-প্রোডাকশনের ছবিতে অভিনয় করেছেন। ১৯৮৪ সালে রোজিনা কো-প্রোডাকশনের ছবি ‘অবিচারে’ অভিনয় করেন বোম্বের সুপারস্টার মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে। এ ছবির পরিচালক ছিলেন হাসান ইমাম ও শক্তি সামন্ত।

সময়ের ধারাবাহিকতায় ১৯৯০ সালে এসে রোজিনা তখন এক অভিজ্ঞ অভিনেত্রী। আর তখনই রোজিনা ঘোষণা দেন আপাতত আর ছবিতে কাজ করবেন না। দীর্ঘদিন পর দেশে এসে ২০০৪ সালে তিনি মতিন রহমানের পরিচালনায় ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় রাক্ষুসী ছবিতে অভিনয় করেন। এ ছবিতে তার বিপরীতে ছিলেন ফেরদৌস। তার পর আর কোনো ছবিতে অভিনয় করেননি।

চোখের মণি’, ‘সুখের সংসার’, ‘সাহেব’, ‘তাসের ঘর’, ‘হাসু আমার হাসু’, ‘হিসাব চাই’, ‘বন্ধু আমার’, ‘কসাই’, ‘জীবনধারা’, ‘সুলতানা ডাকু’, ‘মানসী’, ‘দোলনা’, ‘দিনকাল’, ‘রসের বাইদানী’, ‘জীবনধারা’, ‘রূপবান’, ‘আলোমতি ‘প্রেমকুমার’, ‘হামসে হায় জামানা’সহ তিন শর মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন রোজিনা।

জন্মদিনের আগের দিনই রোজিনাকে ফেসবুকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অনেক জনপ্রিয় সিনেমায় তার সহ-অভিনেত্রী অঞ্জনা। তিনি লেখেন, ‘শুভ জন্মদিন, আমাদের বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম দাপুটে, স্বনামধন্য, জনপ্রিয়, কিংবদন্তি অভিনেত্রী, ভালোবাসার প্রিয় মিষ্টি বোন চিত্রনায়িকা রোজিনা। একসাথে অসংখ্য সুপার-বাম্পার হিট, মাইলস্টোন চলচ্চিত্রে আমরা কাজ করেছি। আজকে সেই মধুময় স্মৃতিগুলো অনেক মনে পড়ছে। তোমার জন্মদিনে আমার পক্ষ থেকে রইল আন্তরিক অভিনন্দন এবং প্রাণঢালা শুভেচ্ছা। অনেক ভালো থাকো, সুখে থাকো, সমৃদ্ধময় হোক তোমার আগামীর প্রতিটি পথ চলা। আমি এই প্রত্যাশা করি।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads