• শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৮
হালুয়াঘাটে কারিগরি শাখায় শ্রেষ্ঠ কুতিকুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজ

প্রতিনিধি পাঠানো ছবি

শিক্ষা

হালুয়াঘাটে কারিগরি শাখায় শ্রেষ্ঠ কুতিকুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজ

  • ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশিত ০১ নভেম্বর ২০২২

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ২০২২ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কারিগরি শাখায় উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গৌরব অর্জন করেছে ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘কুতিকুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ’। উপজেলার শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন এই কলেজের প্রভাষক ইয়াহিয়া হোসেন। পাশাপাশি বিভাগীয় পর্যায়ে ২০২১-২২ শিক্ষা বর্ষে কারিগরি শাখায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়েছেন এই কলেজের শিক্ষার্থী মারুফা আক্তার।

 
এ উপলক্ষ্যে গত বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা পরিষদ কনফারেন্স রুমে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উদযাপন কমিটির পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাখাওয়াত হোসেন ফকির, হালুয়াঘাট সরকারি শহীদ স্মৃতি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ নাসির উদ্দিন, উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার সাইফুল ইসলাম উপস্থিত থেকে নির্বাচিত সকলের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদপত্র তুলে দেন। শ্রেষ্ঠ কারিগরি প্রতিষ্ঠান হিসেবে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সনদপত্র গ্রহন করেন কুতিকুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ এর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সুজিত মজুমদার।


প্রতিষ্ঠানের এমন সাফল্যে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন কলেজের সভাপতি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক অতিরিক্ত সচিব ড. এস এম মুনজুরুল হান্নান খান। এ বিষয়ে তিনি বলেন, আমি একটি স্বপ্ন নিয়ে এই কলেজটি ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠা করেছি। আমার স্বপ্ন ছিলো এই প্রত্যন্ত এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে শিক্ষার আলো পৌছে দেওয়া। আমি প্রত্যন্ত এই গ্রাম থেকেই উঠে এসেছি। তখন শিক্ষার জন্য আশেপাশে কোন কলেজ ছিলো না। আমি সবসময় মনে করি গ্রামের মানুষের শিক্ষার প্রতি প্রবল আগ্রহ। আমার কলেজ থেকে অনেকে শিক্ষার্থী লেখাপড়া করে সরকারি/বেসরকারি চাকুরী করছে। আমার এলাকার নাম উজ্জল করছে। আমি আন্তরিকভাবে অভিনন্দন জানাই কলেজের শিক্ষক/শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের। সবার ঐকান্তিক  প্রচেষ্ঠায় এগিয়ে যাচ্ছে কুতিকুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ।


কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সুজিত মজুমদার বলেন, আমরা সবসময় চাই আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়মিত পরিচর্যার মাধ্যমে আনন্দমুখর পরিবেশে তাদের মেধার সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিতের মাধ্যমে একটি ভিত্তি গড়ে দিতে। আমাদের কলেজের আনন্দ মুখর আধুনিক পাঠদান পদ্ধতির কারণে ছাত্র-ছাত্রীরা নিজ উৎসাহে কলেজে আসে, তাদের প্রতিটি দিনের ভালোলাগা শুরুর স্থানটিই আমাদের কলেজ প্রাঙ্গণ। বিশেষ কৃতজ্ঞতা আমাদের কলেজের প্রতিষ্ঠাতা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক অতিরিক্ত সচিব ড. এস এম মুনজুরুল হান্নান খান স্যার এর প্রতি। উনি যদি এই কলেজ প্রতিষ্ঠা না করতেন তাহলে আজ এই এলাকার মানুষ শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত থাকতো। উনার এই মহতি উদ্যোগ আগামী প্রজন্মের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে।

 
উল্লেখ্য, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক অতিরিক্ত সচিব ড. এস এম মুনজুরুল হান্নান খান ২০০৩ সালে উপজেলার ধারা ইউনিয়নের কুতিকুড়া গ্রামে কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন। উনার ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় ২০০৫ সালে কলেজটিতে কৃষি ডিপ্লোমা ও ২০০৮ সালে ভোকেশনাল শাখা চালু হয়। ২০১০ সালে কলেজটির বিএম শাখা ও ২০১৯ সালে কৃষি ডিপ্লোমা শাখাটি এমপিও ভুক্ত হয়। ২০২১ সালে কারিগরি শাখায় অনুষ্ঠিত এইচ এস সি পরীক্ষার ফলাফলে উপজেলায় প্রথম স্থান অধিকার করে কুতিকুড়া টেকনিক্যাল এন্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ। এই কলেজের উন্নয়নের জন্য সভাপতি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।



আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads