• রবিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ২ মাঘ ১৪২৮

ফ্যাশন

শীতের সঙ্গী জ্যাকেট

  • অরণ্য সৌরভ
  • প্রকাশিত ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

প্রকৃতির পালাবদলের সঙ্গে সঙ্গে পরবির্তন আসে ফ্যাশনে। অন্যান্য ঋতুর চেয়ে শীতের সঙ্গে ফ্যাশনের গভীর সম্পর্ক। তরুণ-তরুণীরা এই সময়টাতে ফ্যাশনেবল বহুরূপী পোশাক পরতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। জ্যাকেট ছাড়া শীতে তরুণদের ফ্যাশন যেন অপূর্ণতায় ভরা! কারণ জ্যাকেট ফ্যাশনের পাশাপাশি ব্যক্তিত্ব, আভিজাত্যও ফুটিয়ে তুলে। লুকে আনে রক অ্যান্ড রোল। শীতের হাল ফ্যাশনের জ্যাকেট নিয়ে লিখেছেন—অরণ্য সৌরভ

হেমন্তের হাত ধরে প্রকৃতিতে নেমেছে শীত। ভোর থেকে সকালের প্রথম ভাগটি হিমেল হাওয়ায় ঠান্ডা ঠান্ডা অনুভূতি। পূব আকাশে সূর্য্যের উঁকি দেখা মিলছে কিছুটা দেরিতে। সবুজ ঘাসের বুকে চিকচিক করছে শিশির কণা। প্রকৃতির এমন বার্তায় মনে পড়ে শীত আসছে। নগরে কিছুটা দেরিতে শীত আসলেও হেমন্তের এই বেলায়ই গ্রামে টের পাওয়া যাচ্ছে তোড়জোড় শীতের। প্রকৃতির পালাবদলের সঙ্গে সঙ্গে পরবির্তন আসে ফ্যাশনেও। বিশেষ করে শীতের সঙ্গে ফ্যাশনের গভীর সম্পর্ক। অন্যান্য ঋতুর চেয়ে ফ্যাশনপ্রেমী তরুণ-তরুণীদের জন্য শীতের মৌসুমটা বেশ উপভোগ্য। কারণ এই সময়টাতে ফ্যাশনেবল বহুরূপী পোশাক পরা হয়।

জ্যাকেট ছাড়া শীতে তরুণদের ফ্যাশন যেন অপূর্ণতায় ভরা! কারণ জ্যাকেট ফ্যাশনের পাশাপাশি ব্যক্তিত্ব ও আভিজাত্যও ফুটিয়ে তুলতে সাহায্য করে। লুকে আনে রক অ্যান্ড রোল। এই কারণে শীতের হাল ফ্যাশনে জ্যাকেট তরুণদের পছন্দের র্শীষে। ফ্যাশন হাউসগুলোতে বিভিন্ন ধরনের জ্যাকেটের দেখা মিলেছে। এর মধ্যে রয়েছে—ডেনিম জ্যাকেট, লেদার জ্যাকেট, আর্টিফিশিয়াল লেদার জ্যাকেট, হাফ ও ফুল স্লিভ মেনজ জ্যাকেট, হাতাকাটা জ্যাকেট, মেনজ রেগুলার ফিট জ্যাকেট, লেডিস স্লিভ ফিট ফুল স্লিভ জ্যাকেট, হুডি জ্যাকেট ইত্যাদি।

ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরাও সমানতালে শীতপোশাক হিসেবে বিভিন্ন ধরনের জ্যাকেট বেছে নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ফ্যাশন ডিজাইনাররা।

তরুণদের জ্যাকেট পছন্দের কারণ জানিয়েছেন বিশ্বরঙ’র কর্ণধার বিপ্লব সাহা। তিনি বলেন, ক্যাজুয়াল বা দাওয়াত, ডিনার পার্টি, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা—সব পরিবেশে জ্যাকেট তরুণদের আকর্ষণীয় পরিধেয় হতে পারে। কারণ জ্যাকেট ফ্যাশনের পাশাপাশি ব্যক্তিত্ব ও আভিজাত্যকেও ফুটিয়ে তুলে। এছাড়া একটু বেশি শীতে সোয়েটারের ওপর একটা আর্টিফিশিয়াল বা লেদার জ্যাকেট পরে নিলেই ফিরে আসে স্মার্ট লুক।

ফ্যাশন ব্র্যান্ড বিশ্বরঙ এই শীতে নিয়ে এসেছে আর্টিফিশিয়াল জ্যাকেট। জ্যাকেটের রং নিয়ে ডিজাইনার বিপ্লব সাহা বলেন, জ্যাকেটে গাঢ় রং এবার বেশি গুরুত্ব দিয়েছি। নেভি ব্লু, লাল, অ্যাশ, হলুদের মতো উজ্জ্বল রংকেও প্রাধান্য দিয়েছি। এছাড়া কালো, গোলাপি, ম্যাজেন্টা, কফি, মেরুন, ডার্ক, সবুজ, ধূসর, সাদা, কালো, নীল রংও জ্যাকেটে ফুটে উঠেছে। ডেনিম, ফানেল, কর্ড, উল, মোটা ক্যানভাস কাপড় বা প্যারাসুট কাপড়ের জ্যাকেট রয়েছে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে ও শপিং মলে।

আর্টিফিশিয়াল লেদারের জ্যাকেটের মধ্যে ক্লাসিক লেন্থ জিপ ফ্রন্ট জ্যাকেট, টু বাটন, ফোর বাটন, ভেলেন্ট লেদার রাইডিং জ্যাকেট, মোটরবাইক, মিলিটারি, এভিয়েটর, রকস্টারসহ বেশ কিছু স্টাইল জনপ্রিয় বলে জানান সৌমিক দাস।

রঙ বাংলাদেশের ফ্যাশন ডিজাইনার সৌমিক দাস বলেন, যারা কিছুটা ভারী ধরনের জ্যাকেট পরতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে তারা চামড়ার জ্যাকেট বেছে নিতে পারে। গরুর ও ভেড়ার চামড়ার জ্যাকেটের পাশাপাশি পিইউ বা কৃত্রিম চামড়ার জ্যাকেটও মার্কেটে রয়েছে বলে ডিজাইনাররা জানান। এ ছাড়া র্যাকসিনের জ্যাকেটও রয়েছে। দামে যদিও সহজলভ্য তবে টেকসই নয় তেমন।

 

কোন অনুষ্ঠানে কেমন জ্যাকেট

পার্টিতে লেদার জ্যাকেট সিল্কের শাড়ির ওপর পরা যেতে পারে বলে জানান সৌমিক দাস। কালো কিংবা ব্রাউন কালারের লেদার জ্যাকেট পার্টি শু কিংবা স্লিকারসের সঙ্গে পরতে পারেন বলেও তিনি জানান।

ফ্যাশন ডিজাইনার বিপ্লব সাহা বলেন, ক্যাজুয়াল যে কোনো আয়োজনে পরতে পারেন ডেনিম, ফানেল, কর্ড বা প্যারাসুট কাপড়ের জ্যাকেট। বন্ধুদের আড্ডা, স্ট্রিট ফ্যাশন থেকে শুরু করে নৈশ আড্ডাতে ভালো লাগবে ব্লেজার জ্যাকেট। ফরমাল কিংবা সান্ধ্য পার্টিতে চেকের জ্যাকেটের সঙ্গে একরঙা ট্রাউজারে স্টাইলিশ লাগবে। এছাড়া ছেলে-মেয়ে সবারই যে কোনো জ্যাকেট মানাবে জিন্সের প্যান্টের সঙ্গে।

 

কোথায় পাবেন, দরদাম কেমন

ফ্যাশনেবল শীতের পোশাক পেতে পারেন বিশ্বরঙ, সারা, রঙ বাংলাদেশ, সেইলর, ইয়েলো, লা রিভ, ইজিসহ বিভিন্ন দেশীয় ফ্যাশন হাউসে। এ ছাড়া নিউ মার্কেট, গাউছিয়া, আজিজ সুপার মার্কেট, ইস্টার্ন প্লাজা, মৌচাক মার্কেট, বঙ্গবাজার, গুলিস্তান মার্কেট, বায়তুল মোকাররম মার্কেটসহ বেশ কিছু মার্কেটে তুলনামূলক কম দামে পেতে পারেন শীতের পোশাক। জ্যাকেটের ডিজাইন, কাপড়ের মান ও ব্র্যান্ডভেদে জ্যাকেটের দামের পার্থক্য রয়েছে। হাজার টাকা থেকে জ্যাকেটের দাম শুরু হয়েছে।

 

জ্যাকেটের যত্ন-আত্তি

·    লেদার জ্যাকেট ব্যবহারের পর শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে আলমারিতে হাঙ্গারে ঝুলিয়ে রাখুন।

·    কাঠের আলমারিতে লেদার রাখার চেষ্টা করুন।

·    কড়া রোদে রাখবেন না।

·    বডিলোশন, বডিঅয়েল, বডি স্প্রে বা অন্যান্য প্রসাধন থেকে লেদারের জ্যাকেট দূরে রাখুন।

·    লেদারের জ্যাকেটের ওপর লবণের মতো সাদা সাদা দানা জন্মালে শুকনো নরম সুতির কাপড় দিয়ে মুছে জ্যাকেটে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন।

·    লেদারের জ্যাকেটে ডিটারজেন্ট বা ওয়াশিং মেশিনে ওয়াশ করা থেকে বিরত থাকুন।

·    দীর্ঘদিন প্লাস্টিকের প্যাকেটে লেদারের জ্যাকেট মুড়ে রাখা থেকে বিরত থাকুন।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads