• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯

ফ্যাশন

ডেনিম ট্রেন্ড

  • অরণ্য সৌরভ
  • প্রকাশিত ০৮ জানুয়ারি ২০২২

ফ্যাশন পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে পাল্টে যায় রুচিবোধও। হালফ্যাশনের তরুণ-তরুণীদের শীতের পোশাক-আশাকে ডেনিম অন্যতম উপাদান হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে।

‘বিশ্বের অন্যতম আদি ফেব্রিক হলেও ডেনিমের যৌবন চিরন্তন’—‘আমেরিকান ফেব্রিকস’ নামক ম্যাগাজিনের একজন রিপোর্টার ১৯৬৯ সালে উক্তিটি লিখেছিলেন। সতেরো শতক থেকে অদ্যবধি ডেনিমের জনপ্রিয়তা ও চাহিদা দিনকে দিন বেড়েই চলেছে।

ফ্যাশনে ডেনিমের আবির্ভাব গত শতকের পঞ্চাশের দশকে। তখন থেকেই ডেনিম ‘টেনিউরড ট্রেন্ড’ হিসেবে জায়গা দখল করে আছে। জিন্স ও ডেনিমের মধ্যে গোলপাক বাঁধিয়ে ফেলেন অনেকেই। জিন্স হচ্ছে ডেনিম ফেব্রিক থেকে বানানো প্যান্ট। বিষয়টা অনেকটা ‘সব জিন্সই ডেনিম, কিন্তু সব ডেনিম জিন্স নয়’-এর মতো। তাই কখনো জিন্সের শার্ট, জ্যাকেট হয় না। সব ডেনিমের শার্ট, জ্যাকেট।

জ্যাকেট, শার্টের পর এখন ডেনিম দিয়ে বানানো হয় নানা ডিজাইনের স্কার্ট ড্রেস, জাম্পস্যুট, টপস, এমনকি কুর্তাও। এদেশের ফ্যাশনপ্রেমীরা কেবল শীতের সময় ডেনিমের পোশাককে প্রাধান্য দিয়ে থাকে।

কয়েক বছর আগে মেয়েদের জিনসের ফ্যাশনে বেশ পরিবর্তন এসেছে। মেয়েদের আঁঁটসাঁট জিন্স আর দেখা যাচ্ছে না। সময় এখন ঢোলা জিনসের। ব্যাগি, স্ট্রেট কাট, বুটকাট লেগ, ফ্লেয়ার জিনস খুব চলছে। সেই সঙ্গে নতুন করে আবার এসেছে হাই ওয়েস্ট, ডিস্ট্রেস (ছেঁড়া-ফাটা) ও ফেডেড (রং ঝলসানো) স্টাইল।

রঙের ক্ষেত্রে ইন্ডিগো ব্লু, লাইট ব্লুর পাশাপাশি গ্রে আর ফেডেড ব্ল বেশি দেখা যাচ্ছে। এ ধরনের স্ট্রেট কাট, বুটকাট লেগ, লাইট ফ্লেয়ার প্যান্ট পরা যাবে টি-শার্ট, শার্ট, মিডিয়াম বা লং টপসের সঙ্গে।

ডেনিমের ফেব্রিক দুই ধরনের। একটি ইন্ডিগো ডায়িং, অন্যটি সালফার ডায়িং। ট্র্যাডিশনাল ব্লু ও এর বিভিন্ন শেডের কাপড়গুলো হয় ইন্ডিগো ডায়িংয়ে। আর কালো, সবুজ, লাল ইত্যাদি কালার করা হয় সালফার ডায়িংয়ের মাধ্যমে। ডেনিম ফেব্রিকে এসেছে পরিবর্তন। আমাদের দেশে বর্তমানে পাতলা ডেনিম বাজারে পাওয়া যায় এবং কদরও বেশি।

ছেলেমেয়ে উভয়ের পছন্দ ডেনিম শার্ট। হাফ বা লং স্লিভের এই শার্ট গরমেও পরা যায়, যদি না ফেব্রিকটা লাইট হয়। ডেনিম শার্টের রং সাধারণত নীল শেডেরই হয়ে থাকে। পরতে পারেন একই শেড বা এক-দুই ধাপ গাঢ় বা হালকা শেডের জিনসের সঙ্গে। ডেনিম অন ডেনিম সব সময় দারুণ মানায়। এ ছাড়া অন্য রঙের অন্য ফেব্রিকের প্যান্ট বা স্কার্ট বা লেগিংসের সঙ্গেও এই শার্ট ভালো মানাবে।

শুধু পোশাক নয়, অ্যাকসেসরিজের দুনিয়ায় শক্ত জায়গা দখল করে আছে ডেনিম। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দেখা যায় ডেনিমের জুতা ও ব্যাগ। নানা ডিজাইনের এই অনুষঙ্গগুলো এখন সবারই খুব পছন্দের। ডেনিমের ব্যাগ আর জুতা দেখতে শুধু স্টাইলিশই নয়, টেকসইও বটে।

রঙ বাংলাদেশের ডিজাইনার সৌমিক দাস জানান, আমাদের দেশে শুধু শীতকালীন পোশাক হিসেবে ডেনিমের কদর রয়েছে। কিন্তু এই ফেব্রিকটি সারা বছরের ফ্যাশন ট্রেন্ডের অন্যতম অংশ হয়ে উঠতে পারে। জিন্স ছাড়া এসব স্টাইলিশ পোশাকে ব্যবহার করা হয় খুবই পাতলা ডেনিম। ডেনিমের জন্য সাধারণত পিওর এবং টেনসিল ফেব্রিক ব্যবহার হয়ে থাকে। এর মধ্যে টেনসিল সাধারণত পাতলা হয়ে থাকে। তাই দিন দিন জনপ্রিয়তা পাচ্ছে ডেনিম। আমরাও যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তৈরি করছি জ্যাকেট, শার্ট, ওমেন্স শার্ট, ইউনিসেক্স শাল, কুর্তি, টপস এবং ওমেন্স জ্যাকেট। এ ছাড়া সারা বছরের জন্য তৈরি করা হয় ডেনিম হ্যাট, প্যান্ট এবং শর্টস।

পরতে আরাম। ক্যাজুয়াল ও ফরমাল দুটো লুকেই এই পোশাক মানিয়ে যায়। এবারের শীতের ফ্যাশন ট্রেন্ডটাও হয়তো ডেনিমকে ঘিরেই। পার্টি বা কলেজ বা বন্ধুদের আড্ডা সব জায়গায় ডেনিম সহজেই মানিয়ে যায়। ফুলহাতা শার্ট এখন ফ্যাশনের নতুন এক মাত্রা যোগ করেছে। ডেনিমের ক্যাজুয়াল ফুলস্লিভ বা হাফ শার্ট এখন সবার পছন্দের। বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, স্লিম ফিটেড আর কোমর পর্যন্ত লম্বা শার্টের বাজার রমরমা। চেক, স্ট্রাইপ, এক রঙা কিংবা ওয়াশেবল প্রিন্টেড শার্টগুলো সবাই বেছে নিচ্ছেন। কালার ভেরিয়েশনে এ বছর থাকছে হালকা ও গাঢ় দুই রঙেরই মিশেল। পাতলা ডেনিম শার্ট হাল্কা শীতে তো বটেই, গরমেও পরা যায়।

 

ডেনিমের যত্ন

ডেনিমের ক্ষেত্রে কড়া ডিটারজেন্ট না ব্যবহার করাই ভালো। সবচেয়ে ভালো হয় যদি শ্যাম্পু দিয়ে ধোয়া যায়। ফলে অনেক দিন পর্যন্ত ডেনিমের রং ধরে রাখতে পারবেন।

কড়া ডিটারজেন্ট অর্থাৎ যেগুলোতে কড়া দাগ যায়, এসব ডিটারজেন্ট ডেনিমের রং খুব দ্রুত নষ্ট করে দেয়।

ড্রাই ওয়াশ করা য়ায় তবে খুব ভালো ডেনিমের জন্য।

একটু হালকা আলোতে কাপড় শুকাতে হবে।

কাপড় আয়রন করলে সেটি হতে হবে খুরই হালকা টেম্পারেচারে। আর ভাঁজ করে রাখতে চাইলে ভেতরে একটা কাগজ দিয়ে রাখলে ভালো।

ভারী ডেনিম শীত চলে গেলে খুব একটা পরা হয় না, সে ক্ষেত্রে এয়ার টাইট ব্যাগে রাখতে পারেন। তাহলে রং নষ্ট হবে না।

 

কোথায় পাবেন

রাজধানীর বিভিন্ন শোরুমে মিলবে ডেনিমের বাহারি কালেকশন। ব্র্যান্ডের পোশাকের দাম একটু বেশি হয়ে থাকে। ডেনিম এসব শার্টের দাম পড়বে ১০০০ থেকে ২৫০০ টাকা। একটু কম খরচে কিনতে ঢুঁ মারতে পারেন রাজধানীর নিউমার্কেট, বঙ্গবাজার, আজিজ সুপার মার্কেট, এলিফ্যান্ট রোড এবং মিরপুরের বিভিন্ন শপিং মলে।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads