• মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

সাহিত্য

কবিতা

  • প্রকাশিত ২৪ এপ্রিল ২০২১

রায়হান উল্লাহ

আমিই অমানুষ

 

চারপাশে অসংখ্য মুখ দেখি, মুখোশ দেখি। কারসাজির হাত দেখি, হাতে হাতে হাতবদলের ফেরি দেখি। পায়দলে মিশে যাওয়া পা দেখি। সিনায় সিনায় জড়াজড়ির মায়া দেখি। অনেকগুলো ধূর্ত চোখ দেখি। চোখে প্রেমের বানোয়াট কাব্য দেখি। অনেক অনেক বুক দেখি। বুকে আশার হুতাসন দেখি। চারপাশে কথার ফুলঝুরি দেখি। মানব-মানবীর প্রেম দেখি। ঘরহীন সংসার দেখি। ইট-কাঠ-পাথরের ভালোবাসা দেখি। চারপাশে অনেক কিছুই দেখি। শুধু দেখি না মানুষ। দেখার বড়ই শখ। আমিই হয়তো মানুষ নই। তাই চোখের ক্ষুধা রয়েই গেল!

 

 

গাফফার মাহমুদ

রোদপোড়া ডাকবাক্স

 

গলির মোড় ফুটপাতের পাশে কতো চিঠি গিলতো রোজ রোদপোড়া ডাকবাক্স

মুষল জলধারা, টুপটাপ বৃষ্টিজল তবুও গলির মোড়েই রয়েছে দৃশ্যমান

কতোই খবর, কতোই ভাবভাষা বুকে জমাট বেঁধেই থাকতো ডাকবাক্সে জমা

বিমল পোস্টম্যান কাঁধে মেলব্যাগ, দরজাটা ফাঁক করলেই বেরোতো চিঠির রোদ্দুর

 

তীব্র তাপদাহ রোদপোড়া ডাকবাক্স কতোই খবরের বোঝা বয়ে যেতো রোজ

গলির মোড়েই অমূলক দাঁড়িয়েই আছে কেউই এখন রাখে না তার খোঁজ

 

রহিম ইবনে বাহাজ

আমাদের দূর্বাঘাসের জীবন

 

পোয়াতি গোলাপ ঝরছে দিনমান

পথের দু-ধারে,

দূর্বাঘাস

তোমাদের চরণে আচরণে,

অকালে মার খাচ্ছে,

মার খাচ্ছে, ঘাম ঝরা শ্রমিকেরা

আমি প্রেমের কথা কইলেই

রূঢ়ভাবে বলছে,

আমি নাকি

গাদ্দারের বাচ্চা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads