• বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

জাতীয়

ফিলিস্তিন সঙ্কট নিরসনে নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান

  • প্রকাশিত ১৭ মে ২০২১

আল-কুদস আল-শরীফসহ ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের দখলকৃত অংশে চলমান ভয়াবহ সহিংসতা নিরসন ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে জরুরি পদক্ষেপ নিতে বাংলাদেশ আজ জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ (ইউএনএনসি)’র প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘বাংলাদেশ মনে করে যে- নিরপরাধ বেসামরিক লোককে হত্যার কোন ওজর থাকতে পারে না। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন ও মানবাধিকারের ভিত্তিতে কোন মানুষের প্রার্থনায় বিঘ্ন ঘটানোকে ন্যায়সঙ্গত বলা যাবে না। এর স্বপক্ষে কোন যুক্তিই থাকতে পারে না।’

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ জাতিসংঘ প্রস্তাব, আরব শান্তি উদ্যোগ ও কোয়ার্টার রোডম্যাপের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ একটি সমন্বিত ও টেকসই সমাধানে বিশ্বাসী। জাতিসংঘের প্রধান অঙ্গ হিসেবে ইউএনএসসি’র উচিত আন্তর্জাতিক অঙ্গনে শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ভার্চুয়াল প্লাটফরমে আয়োজিত ওআইসি নির্বাহী কমিটির এক উন্মুক্ত সভায় মোমেন এ কথা বলেন।

আল-কুদস আল শরীফে নিরপরাধ বেসামরিক মানুষের উপর দখলদার ইসরাইলী বাহিনীর সন্ত্রাসী হামলা, আল-আকসা মসজিদে বোমা বর্ষণ এবং এরপর প্রার্থনারত মুসুল্লি ও শেখ জাররাহ আবাসিক এলাকায় ফিলিস্তিনী বাসিন্দাদের উপর হামলার প্রতিবাদে এই বৈঠকের আহ্বান করা হয়।

বৈঠকে, বাংলাদেশ জাতিসংঘে ওআইসি’র পক্ষ থেকে বিবৃতি প্রদানের কথা উপস্থাপন করে এবং ইউএনএসসি তার দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ১০তম জরুরি বিশেষ অধিবেশন আহ্বানের ব্যাপারে একমত প্রকাশ করে।

মোমেন মানবতার কল্যাণে কাজ করতে ও সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে মানবতার পাশে জোরালোভাবে দাঁড়ানোর জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

সাম্প্রতিক সহিংসতায় হতাহতের জন্য বাংলাদেশ গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্টকে এক চিঠিতে বলেন, ‘আমি এই সময়টিকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় ফিলিস্তিনের ভাতৃপ্রতিম জনগণের অধিকারের প্রতি বাংলাদেশের সমর্থনের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করতে চাই। পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী তরে ১৯৬৭ সালে নির্ধারিত সীমা অনুযায়ী একটি স্বাধীন সার্বভৌম ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের অধিকার ওই ভূখ-ের জনগণের রয়েছে।’

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads