• রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৭
কাপ্তাইয়ে বেড়েছে বিদ্যুৎ উৎপাদন

সংগৃহীত ছবি

জাতীয়

কাপ্তাইয়ে বেড়েছে বিদ্যুৎ উৎপাদন

  • কাপ্তাই (রাঙ্গামাটি) প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত ২৮ জুলাই ২০২১

রাঙামাটিতে এবার বর্ষায় পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত হয়নি। তবে কিছুদিন ধরে থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে এবং হ্রদে পাহাড়ি ঢল নামতে শুরু করেছে। এতে উৎপাদন বেড়েছে কাপ্তাই জলবিদ্যুৎকেন্দ্রের। কাপ্তাই জলবিদ্যুৎকেন্দ্রে গত সপ্তাহে দৈনিক বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়েছে একশ মেগাওয়াটের নিচে। সেখানে চারটি ইউনিটে বর্তমানে উপাদন হচ্ছে ১২২-১২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। কাপ্তাই হ্রদে পানি পর্যাপ্ততার ওপর নির্ভর করে বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন। প্রতি বছর শুষ্ক মৌসুমে বিদ্যুৎ উৎপাদন কমতে থাকে এবং বর্ষায় পাঁচ ইউনিটে ২৩০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎকেন্দ্রটির সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়ে থাকে। কাপ্তাই হ্রদে পানির ধারণক্ষমতা ১০৯ ফুট এমএসএল।

কাপ্তাই বিদ্যুৎকেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার সকাল ৮টা পর্যন্ত স্বাভাবিক সময়ে কাপ্তাই হ্রদে পানির পরিমাণ থাকার কথা ৮৭ দশমিক ৮৪ ফুট এমএসএল। সেখানে বর্তমানে পানি আছে ৮৪ দশমিক ৫৩ ফুট এমএসএল। কেন্দ্রের পাঁচ ইউনিটের মধ্যে ২ নম্বর ইউনিটটি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বন্ধ রয়েছে। বাকি চারটি ইউনিট সচল আছে। এর মধ্যে ১ নং ইউনিটে ২৯-৩৫ মেগাওয়াট, ৩ নং ইউনিটে ৩০-৩৫ মেগাওয়াট, ৪ নং ইউনিটে ৩০ মেগাওয়াট এবং ৫ নং ইউনিটে ৩০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। বর্তমানে প্রতিদিন ১২২-১২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে।

কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎকেন্দ্রের কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা গেছে, গত সপ্তাহে যেখানে গড়ে প্রতিদিন ১০০ মেগাওয়াটের নিচে বিদ্যুৎ উৎপাদন হতো, সেখানে বর্তমানে কাপ্তাই হ্রদে পানির পরিমাণ বাড়ায় বিদ্যুৎ উৎপাদন বেড়েছে। বৃষ্টিপাত বাড়লে উৎপাদন আরো বাড়বে।

কাপ্তাই কর্ণফুলী জলবিদ্যুৎকেন্দ্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এটিএম আবদুজ্জাহের জানান, বিদ্যুৎকেন্দ্রের দুই নম্বর ইউনিটটি ছাড়া বাকি চারটি ইউনিট চালু আছে। হ্রদে এই সময়ে যা পানি থাকার কথা তার চেয়ে তিন ফুট এমএসএলের মতো কম আছে। তবে গত কয়েকদিনে হ্রদের পানি বাড়তে শুরু করায় বিদ্যুৎ উৎপাদন বেড়েছে। তিনি আরো বলেন, দুই নম্বর ইউনিটটির যান্ত্রিক ত্রুটি সারানোর কাজ চলছে। সেটা সচল হলে ও পানি স্বাভাবিক নিয়মে বাড়লে বিদ্যুৎ উৎপাদন আরো বাড়বে।

 

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads