• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮

জাতীয়

ঢাকায় শাহজালালে চালুর দশ দিন পর পিসিআর মেশিন বসবে চট্টগ্রাম শাহ আমানতে

  • রাহাত মামুন, চট্টগ্রাম সংবাদদাতা
  • প্রকাশিত ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে চালু হওয়ার সপ্তাহখানেকের মধ্যেই চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরেও চালু হতে পারে পিসিআর মেশিন। ইতোমধ্যে মেশিন বসানোর প্রাথমিক স্থানও নির্ধারণ করে রেখেছে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি কার্যক্রম পরিচালনা করতে দু’টি প্রতিষ্ঠান যোগাযোগ করেছে। 

মহামারি করোনার কারণে দেশে দীর্ঘদিন ধরে আটকা পড়ে আছেন অনেক আরব আমিরাতসহ বিভিন্ন দেশের ফেরত প্রবাসীরা। সম্প্রতি আরব আমিরাত প্রবেশের ছয় ঘন্টা আগে পিসিআর মেশিনে করা পরীক্ষার ফলাফল দেখানোর শর্ত জুড়ে দেয়। ফলে গত ৬ সেপ্টেম্বর করোনাভাইরাস শনাক্তে দেশের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরগুলোতে দু থেকে তিনদিনের মধ্যে পিসিআর পরীক্ষা নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে জনবল, মেশিন সংকট, মেশিন বসানোর স্থানসহ বিভিন্ন জটিলতার সম্মুখীন হয়ে পিছিয়ে যায় পিসিআর মেশিন বসানোর কাজ।

অবশেষে ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দোতলার পার্কিং লটে বসছে করোনা পরীক্ষা করার পিসিআর ল্যাব। গত মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) এই জায়গা পরিদর্শনে যান স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সামর্থ্য না থাকায় বিমানবন্দরে আরব আমিরাতের চাহিদা অনুযায়ী করোনা পরীক্ষার র‍্যাপিড পিসিআর মেশিন বসানো যাচ্ছে না। তার বদলে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বসানো হচ্ছে আরটি-পিসিআর মেশিন। আরব আমিরাত এই মেশিনে করোনা পরীক্ষার সার্টিফিকেট অনুমোদন করবে কিনা তা এখনো স্পষ্ট নয় বলে জানান প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী। 

তবে আগামী তিনদিনের মধ্যে বিমানবন্দরে ছয় প্রতিষ্ঠানের আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরি নির্মাণ হবে। তবে পূর্ণাঙ্গ ল্যাবরেটরি চালু হতে লেগে যাবে আরও এক সপ্তাহ। ঢাকায় চালু হবার ঠিক এক সপ্তাহ বা দশদিনের মধ্যে চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরেও করোনা পরীক্ষার ল্যাব চালু হয়ে যাবে বলে আশা করছেন বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরের ম্যানেজার উইং কমান্ডার ফরহাদ হোসেন খান বলেন, ‘চট্টগ্রামে এখনো পিসিআর মেশিন বসানোর কাজ শুরু হয়নি। ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দরে ল্যাব চালু হবার সপ্তাহ-দশদিনের মধ্যে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরেও ল্যাব চালু হবে আশা করছি। ল্যাব পরিচালনায় ঢাকায় সাত প্রতিষ্ঠানকে অনুমতি দেয়া হয়েছে। আমাদের সাথেও ইতোমধ্যে দু’টি প্রতিষ্ঠান যোগাযোগ করেছে। আপাতত তাদের বিষয়ে আমরা কোন তথ্য দিতে চাচ্ছি না। পাশাপাশি সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়া যায় এমন স্থানে ল্যাবের জন্য নির্ধারণ করছি। বিমানবন্দরের মূল ভবনের বাইরে আমরা ল্যাব স্থাপনের জন্য প্রাথমিকভাবে স্থান নির্ধারণ করে রেখেছি।’

এর আগে, দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসীরা দেশের সব বিমানবন্দরগুলোতে র‌্যাপিড পিসিআর মেশিন স্থাপনের দাবি জানিয়ে আসছিলো। গত শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদে একই দাবি তুলেন চট্টগ্রাম ৮ আসনের সংসদ সদস্য ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দীন আহমদ। পরবর্তীতে গত (৬ সেপ্টেম্বর) দুই থেকে তিনদিনের মধ্যে সকল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পিসিআর মেশিন স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আরও পড়ুন



বাংলাদেশের খবর
  • ads
  • ads